চিকিৎসা কর্মীদের সম্মান জানাতে ডক্টরস ডেতে স্বাস্থ্য কর্মীদের ছুটি ঘোষণা করল রাজ্য সরকার

চিকিৎসা কর্মীদের সম্মান জানাতে ডক্টরস ডেতে স্বাস্থ্য কর্মীদের ছুটি ঘোষণা করল রাজ্য সরকার

করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা একদম সামনের সারিতে দাঁড়িয়েই লড়াই করেছেন করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে। রাজ্যবাসী তাদের জন্য গর্বিত। আর তাই তাদের কুর্ণিশ এবং সম্মান জানাতে আগামী ১ জুলাই চিকিৎসক দিবসে স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য রাজ্য সরকার ছুটি ঘোষণা করল। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবারই নবান্নের বৈঠক শেষে এই ঘোষণা করলেন।

সোমবার একটি সাংবাদিক সম্মেলনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “ আমি পশ্চিমবঙ্গে ছুটি ঘোষণার পাশাপাশি কেন্দ্র সরকার এবং অন্য রাজ্য সকারগুলিকেও ছুটি ঘোষণার অনুরোধ করব”। শুধু তাই নয় তিনি আরো বলেন যে তিনি কেন্দ্রের কাছে অনুরোধ করবেন যে বর্তমান পরিস্থিতিতে আগামী ১ জুলাই দিনটি যাতে জাতীয় ছুটি হিসেবে ঘোষণা করা হয়। তিনি বলেন করোনার পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যকর্মী এবং চিকিৎসকদের অক্লান্ত পরিশ্রমকে শ্রদ্ধা জানাতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। প্রসঙ্গত রাজ্য সরকার কিছুদিন আগেই রাজ্যের সমস্ত ইন্টার্ন এবং হাউসস্টাফদের স্টাইপেন্ড বাড়িয়ে দিয়েছিল। তখনও রাজ্য সরকারের পক্ষে জানানো হয়েছিল যে যেভাবে করোনা মহামারীর সমত ডাক্তারা দিনরাত এক করে কাজ করেছেন তাকে সম্মান জানাতেই তারা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

শুধু তাই নয় আজ সোমবার সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন যে রাজ্য সরকার টেলি মেডিসিন পরিষেবাও চালু করার ভাবনা চিন্তা করছে। ডক্টর বিধানচন্দ্র রায়ের জন্মদিন ১ জুলাইকে চিকিৎসক দিবস হিসেবে পালন করা হয়। সেদিনই এই পরিষেবা চালু করার ভাবনা চিন্তা করছে রাজ্যসরকার। এই পরিষেবার ফলে এখন থেকে ফোনেই রোগী এবং তার পরিবার চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করতে পারবেন। জানা গিয়েছে জেলায় জেলায় এই পরিষেবা আগামী ১ জুলাই ১২টা থেকে শুরু হবে। আলাদা আলাদা নাম্বার থাকবে প্রতিটি জেলার জন্য। তবে এখনো এই বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয়নি রাজ্য সরকারের তরফে।

আরও পড়ুনঃ  টাকা বেশি নিয়ে কম তেল দেওয়ার অভিযোগ উঠল রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.