রাজ্যের করোনা গ্রাফ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী! গত ২৪ ঘণ্টায় ফের অনেকটাই বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ

রাজ্যের করোনা গ্রাফ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী! গত ২৪ ঘণ্টায় ফের অনেকটাই বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ
রাজ্যের করোনা গ্রাফ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী! গত ২৪ ঘণ্টায় ফের অনেকটাই বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ সদ্য সমাপ্ত হয়েছে দুর্গাপুজো। এদিকে, রাজ্যে করোনার দৈনিক সংক্রমণে এবং মৃত্যুর সংখ্যায় ওঠানামা অব্যাহত। উৎসবের মরশুমে রাজ্যের করোনা গ্রাফ ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী। পাশাপাশি নতুন করে চিন্তা বাড়াচ্ছে কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগণা জেলার বাড়তে থাকা সংক্রমণ। রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় ফের লকডাউন পরিস্থিতি ফিরছে। প্রতিদিনই একটু একটু করে বেড়ে চলেছে রাজ্যে করোনার দৈনিক সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনার দৈনিক সংক্রমণ ফের অনেকটাই বেড়েছে।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৯৭৬ জন। গতকালের থেকে সংক্রমণ অনেকটাই বেশি। গতকাল রাজ্যে করোনার দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৮০৬ জন। স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সংক্রমণের নিরিখে এদিনও প্রথম স্থানে রয়েছে কলকাতা। গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২৭২ জন। গতকালের থেকে সংক্রমণ বেড়েছে। গতকাল কলকাতার দৈনিক সংক্রমণ ছিল ২৪৮ জন। সংক্রমণের নিরিখে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা জেলা। গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ১৫৯ জন। গতকালই এই জেলাতে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৪৮ জন। এছাড়া বাকি সব জেলা থেকেই গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করোনা আক্রান্তের খবর এসেছে। এই মুহূর্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে, ১৫ লক্ষ ৮৯ হাজার ৪২ জন।

স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১৫ জন। গতকালও রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ১৫ জনের। এদিকে, রাজ্যে একদিনে করোনায় মৃত্যুর নিরিখে শীর্ষে রয়েছে কলকাতা এবং জলপাইগুড়ি জেলা। এই জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪ জন করে প্রাণ হারিয়েছেন। মৃত্যুর নিরিখে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা জেলা। গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় করোনায় ৩ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়াও দক্ষিণ ২৪ পরগণা এবং নদীয়া জেলায় ২ জন করে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন। রাজ্যে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৯ হাজার ৯৬ জন।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনাকে পরাস্ত করে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৮৩৭ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনাকে পরাস্ত করে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন মোট ১৫ লক্ষ ৬১ হাজার ৯৭৩ জন। এই মুহূর্তে রাজ্যে মোট চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৭ হাজার ৯৭৩ জন। করোনার তৃতীয় ঢেউ রুখতে কোভিড পরীক্ষায় জোর দেওয়া হচ্ছে রাজ্যে।