‘মুকুল রায় ঘরে ঢুকে গেছে!’ মনোনয়ন পত্র জমা দিতে এসে এমনই মন্তব্য করলেন তৃণমূল প্রার্থী কৌশানী

‘মুকুল রায় ঘরে ঢুকে গেছে!’ মনোনয়ন পত্র জমা দিতে এসে এমনই মন্তব্য করলেন তৃণমূল প্রার্থী কৌশানী
‘মুকুল রায় ঘরে ঢুকে গেছে!’ মনোনয়ন পত্র জমা দিতে এসে এমনই মন্তব্য করলেন তৃণমূল প্রার্থী কৌশানী / নিজস্ব ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ রাজ্যে শুরু হয়েগেছে ভোট যুদ্ধ। সম্পন্ন হয়েছে প্রথম দফার ভোট। আর বাকি ৭ দফা ভোট। রাজ্যের শাসক দলে কে আধিপত্ত বিস্তার করবে তা নিয়ে চলছে রাজনৈতিক বিরোধ। রাজনৈতিক দলগুলি তাঁদের অবস্থান পাকাপক্ত করতে আসরে নেমে পড়েছে। আর ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা সহ নির্বাচনী ইস্তেহার। অন্যদিকে এবার তৃণমূল শিবিরে যোগ দিয়েছে নতুন এক ঝাঁক তারকা। তারমধ্যে একজন হলেন টলিউডের অন্যতম অভিনেত্রী কৌশানী মুখার্জি। আসন্ন নির্বাচনে তিনি উত্তর কৃষ্ণনগর কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের হয়ে লড়বেন। তাঁর বিপক্ষে বিজেপি থেকে লড়বেন মুকুল রায়। তাই লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

প্রসঙ্গত ইতিমধ্যেই তিনি নেমে পড়েছেন প্রচারে। কথা বলছেন মানুষজনদের সাথে। নির্বাচনী প্রচারে নেমে প্রতিক্ষণে মানুষের ভালোবাসা পাচ্ছেন কৌশানী। সেকথা তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় আগেই জানিয়েছিলেন। সম্প্রতি মনোনয়ন পত্র জমা দেন নদীয়ার কৃষ্ণনগর উত্তর বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেসের তারকা প্রার্থী কৌশানী মুখার্জী। বুধবার কৃষ্ণনগর শহরে মিছিল করে এসে কৃষ্ণনগর জেলা প্রশাসন দপ্তরে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি। মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়া ছাড়াও তাঁর বেশকিছু কর্মসূচিও ছিল আজ।

অন্যদিকে তিনি মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, তিনি গনেশ মন্দিরে পুজো দিয়ে তাঁর প্রচার শুরু করেছিলেন। আর আজ বুধবার শুভ দিন মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার মত শুভ কাজ করবেন। আজ তাঁর যাত্রায় কৃষ্ণনগরবাসী যেভাবে সারা দিয়েছে, সেভাবেই তাঁরা পুরো জার্নিতেই থাকবেন বলেই আশাবাদী অভিনেত্রী। এছাড়া আজকে মানুষের সমর্থনের উন্মাদনা দেখে মুকুল রায় নিশ্চিত’ ঘরে ঢুকে গেছে, মনোনয়নপত্র জমা দিতে এসে এমন কথায় বললেন কৌশানী মুখার্জী।

এছাড়া কৌশানী মুখার্জী বলেন, একমাত্র উন্নয়নের নাম মমতা ব্যানার্জি। আগামী পাঁচ বছর তার হাত ধরেই রাজ্যে উন্নয়ন হবে। তিনি জেতার ব্যাপারে ১০০% আশাবাদী। এর পাশাপাশি তিনি বলেন, তিনি কৃষ্ণনগরে তাঁর গ্ল্যামার নিয়ে রাজনীতি করতে আসেন নি। কৃষ্ণনগরের ধুলোবালি সঙ্গে মিশে গেছেন তিনি। গত ২৭ মার্চ থেকেই বাংলায় শুরু হয়েছে নির্বাচন। এবার তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় রয়েছে বেশকিছু নতুন তারকা। তারকাদের যোগদান কতটা প্রভাব ফেলবে নির্বাচনে তা সময় বলবে। কে হবে বাংলার শাসক? কে হাসবে শেষ হাসি তা শুধুমাত্র নির্বাচনের ফলাফলই বলবে। শেষমেশ কে বাংলার শাসকের স্থান দখল করবে তা দেখার জন্য অপেক্ষায় রাজনৈতিক মহল সহ জনগন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.