পুরভোটের প্রার্থী বাছাইয়ে স্বচ্ছ-ভাবমূর্তিতে জোর তৃণমূলের

পুরভোটের প্রার্থী বাছাইয়ে স্বচ্ছ-ভাবমূর্তিতে জোর তৃণমূলের
পুরভোটের প্রার্থী বাছাইয়ে স্বচ্ছ-ভাবমূর্তিতে জোর তৃণমূলের

বিধানসভা নির্বাচনের আগে দেখা গিয়েছিল টিকিট না পেয়ে অনেকেই দল ছেড়ে ছিলেন। এমনকি দলের প্রতি ক্ষোভও উগরে দিয়েছিলেন বেশ কিছু জন। তবে এবার পুরভোটে যদি কেউ টিকিট না পান তাহলেও সে ক্ষেত্রে কোনরকম বিতর্কিত মন্তব্য করা যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দেওয়া হল তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে। একইসঙ্গে যাকে টিকিট দেওয়া হবে তাকে সর্বাত্মকভাবে সাহায্য করতে হবে বলেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দলের তরফে।

কমিশন সূত্রে খবর, চলতি মাসের ২১ থেকে ২৫ নভেম্বরের মধ্যেই প্রকাশিত হতে পারে পুরভোটের দিনক্ষণ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি। ১৯ ডিসেম্বর হতে পারে হাওড়া ও কলকাতার পুরভোট। তাই তার আগেই কর্মীদের দাওয়াই দিতে ময়দানে নামল তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব।

শীর্ষ নেতৃত্বের তরফেই বার্তা দিয়ে সাফ জানানো হয়েছে, দল যাকে টিকিট দেবে সাংগঠনিকভাবে তাকেই জিতিয়ে আনতে হবে। দলের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে বিবেচিত হবে। ক্ষোভ প্রকাশের কোন জায়গা থাকবেনা। টিকিট না পেয়ে জিহাদ ঘোষণা করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে দল। দলের তরফে আরও জানানো হয়েছে, রাজনীতিবিদরা পঞ্চায়েত থেকে লোকসভা সব ভোটেই টিকিট পেতে চান কিন্তু দল যাকে মনে করবে তাকেই টিকিট দেওয়া হবে।

এদিকে দলীয় সূত্রে খবর, শীঘ্রই পুরভোটের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে পারে তৃণমূল চলতি মাসের ২১ থেকে ২৫ নভেম্বরের মধ্যেই প্রকাশিত হতে পারে পুরভোটের দিনক্ষণ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি। আর এরপরেই দেরি না করে পুরভোটের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে দিতে পারে তৃণমূল।

এবারে পুরভোটের তৃণমূলের প্রার্থী তালিকাতেও চমক থাকতে পারে। তরুণ ব্রিগেডদের প্রার্থী করা হতে পারে। বাদ যেতে পারে বেশ কিছু ওয়ার্ড কো-অর্ডিনেটরের নাম । অন্যদিকে গতবারের পুরভোট থেকে শিক্ষা নিয়ে প্রার্থীদের স্বচ্ছ ভাবমূর্তির জোর দিচ্ছে দল। জানা গিয়েছে, এবারে প্রার্থী নির্বাচনের ক্ষেত্রে পাঁচ বছরের পারফরমেন্স দেখেও টিকিট দেওয়া হবে। যদি কোনও কাউন্সিলরের নামে দুর্নীতির অভিযোগ থাকে তাহলেও তাঁকে টিকিট দেওয়া হবে না।