কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থাকাকালীন, গঙ্গার উপরে জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের বিরোধিতা করেছিলেন, বিস্ফোরক দাবি উমা ভারতীর

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থাকাকালীন, গঙ্গার উপরে জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের বিরোধিতা করেছিলেন, বিস্ফোরক দাবি উমা ভারতীর
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থাকাকালীন, গঙ্গার উপরে জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের বিরোধিতা করেছিলেন, বিস্ফোরক দাবি উমা ভারতীর / ছবি সৌজন্যে- Screenshot from Facebook Live Video Post By @UmaBhartiOfficial

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ উত্তরাখণ্ডের বিপর্যয় গোটা দেশকে নাড়িয়ে দিয়েছে। অন্যদিকে এই বিপর্যয় আগামী দিনের জন্য এক বড় সতর্কবার্তাও নিঃসন্দেহে। উত্তরাখণ্ডের প্রাকৃতিক প্রলয়ের পর, একেবারে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে তপোবন বাঁধ। সঙ্গে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে তপোবন জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের।

এদিকে উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী উমা ভারতী এই বিপর্যয় প্রসঙ্গে বিস্ফোরক দাবি করেছেন। উত্তরাখণ্ডের বিপর্যয়ের পর, তিনি মুখ খুলেছেন। তাঁর কথায়, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থাকাকালীন হিমালয় উপত্যকায় গঙ্গা এবং তার মূল শাখা নদীগুলির উপরে জলবিদ্যুৎ প্রকল্প তৈরির বিষয়েও তিনি ঘোর আপত্তি জানিয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন। এ বিষয়ে তিনি বিরোধিতা করে হলফনামা জমাও করেছিলেন বলে জানিয়েছেন। সেই দাখিল করা হলফনামায় বলা হয়েছিল যে, হিমালয় উপত্যকা খুবই স্পর্শকাতর এলাকা। এর সঙ্গে গঙ্গা ও তার মূল শাখা নদীগুলির উপর জলবিদ্যুৎ প্রকল্প তৈরি করতেও এই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আপত্তি জানিয়েছিলেন।

উল্লেখ্য, নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন প্রথম মন্ত্রিসভায় জলসম্পদ নদী উন্নয়ন এবং গঙ্গা পুনর্জীবন মন্ত্রকের দায়িত্বে ছিলেন উমা ভারতী। রবিবারের বিপর্যয়ের পর ট্যুইট করে তিনি বলেছেন, এই ঘটনা শুধু উদ্বেগেরই নয়, ভবিষ্যতের জন্যও এক সতর্কবার্তা৷ তিনি ট্যুইটে বলেছেন যে, ‘আমি গঙ্গা মাইয়ের কাছে প্রার্থনা করি যে, মা যেন সকলকে রক্ষা করেন এবং শেষ পর্যন্ত রক্ষা করেন।’

উত্তরখণ্ডের বিপর্যয়ের পর, এর কারণ নিয়ে চলছে গভীর আলোচনা, সঙ্গে কাটাছেঁড়াও। সেই মুহূর্তে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী উমা ভারতীর এই স্বীকারোক্তি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। রবিবার উত্তরাখণ্ডের চমৌলি জেলায় যোশীমঠের কাছে নন্দাদেবী তুষারধসে আচমকা পাহাড়ের বুকে অলকানন্দা এবং ধৌলিগঙ্গা নদীর জলস্তর বেড়ে গিয়ে বান আসে৷ যার জেরে কার্যত তছনছ হয়ে গিয়েছে তপবনের কাছে গড়ে ওঠা জলবিদ্যুৎ প্রকল্প৷ ১৭০ জন মানুষ এখনও নিখোঁজ৷ এখনও পর্যন্ত বেশ কয়েকজনের জনের দেহ উদ্ধার হয়েছে৷ বাকিদেরও মৃত্যু হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে৷

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী উমা ভারতী নিজে এই মুহূর্তে উত্তরাখণ্ডের হরিদ্বারেই রয়েছেন৷ সেখানেও সতর্কতা জারি করা হয়েছে বলে ট্যুইট করে জানিয়েছেন উমা ভারতী৷ কারণ হরিদ্বারেও গঙ্গার জলস্তর বৃদ্ধির আশঙ্কা রয়েছে৷

আরো পড়ুনঃ   ছেলে ও পুত্রবধূর হেনস্থার কারণে পুলিশের দ্বারস্থ ৭০ বছরের ঘরছাড়া বৃদ্ধা মা! গ্রেফতার ছেলে