‘আপনার ইংরাজি ভয়ংকর’, সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনের কমেন্টের যোগ্য জবাব দিল ‘জুন আন্টি’

'আপনার ইংরাজি ভয়ংকর', সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনের কমেন্টের যোগ্য জবাব দিল 'জুন আন্টি'
'আপনার ইংরাজি ভয়ংকর', সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনের কমেন্টের যোগ্য জবাব দিল 'জুন আন্টি' / ছবি সৌজন্যেঃ Facebook Posted By @ushasiec

বংনিউজ২৪x৭ বিনোদন ডেস্কঃ বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে নানা ঘটনা উঠে আসে আমাদের সামনে। কখনো আনন্দদায়ক, কখনো অবাক করা ঘটনাও উঠে আসে। যা দেখে নেটিজেনরা হতবাক হয়ে যায়। আবার কখনো হেসেই সাড়া হয়। তবে কখনো কখনো সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে আসা অনেক ঘটনা শোকের ছায়াও ফেলে নেটিজেনদের মধ্যে। আর এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে এলো এক অন্যরকম ঘটনা। বর্তমানে স্টার জলসার একটি জনপ্রিয় সিরিয়াল হল ‘শ্রীময়ী’। আর এই সিরিয়ালে অন্যতম জনপ্রিয় হল জুন আন্টি ওরফে উষসী চক্রবর্তী।

'আপনার ইংরাজি ভয়ংকর', সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনের কমেন্টের যোগ্য জবাব দিল 'জুন আন্টি'
‘আপনার ইংরাজি ভয়ংকর’, সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনের কমেন্টের যোগ্য জবাব দিল ‘জুন আন্টি’ / ছবি সৌজন্যেঃ Facebook Posted By @ushasiec

প্রসঙ্গত সোশ্যাল মিডিয়ায় এক নেটিজেন অভিনেত্রীর ইংরাজী উচ্চারণ নিয়ে কটাক্ষ করে বসেন। তবে অভিনেত্রী উষসী চক্রবর্তী যথোপযুক্ত উত্তরও দিয়েছেন। যা মুহূর্তে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। উল্লেখ্য ফেসবুকে এক নেটিজেন অভিনেত্রী কে কটাক্ষ করে লেখেন, আপনার ইংরেজি উচ্চারণ খুবই ভয়ংকর। আর এর উত্তরে জুন আন্টি ওরফে উষসী চক্রবর্তী বলেন, হ্যাঁ ঠিকই বলেছেন। বাংলা মিডিয়াম পড়েছি তো- সরকারী স্কুলে। ক্লাস সিক্স থেকে ইংরেজি ছিল তাই জন্যই বোধ হয় উচ্চারণ তেমন শেখা হয়নি। আসলে বাবার পয়সা ছিল না ইংরেজি স্কুলে ভর্তি করার আর মতাদর্শগত ভাবে বিশ্বাস করতেন সন্তানকে বাংলা স্কুলে পড়াবেন তাই সরকারী স্কুলে পড়িয়েছিলেন। তবে কি ইংরেজি উচ্চারণের সাথে লেখাপড়ায় তেমন সম্পর্ক নেই তাই পড়াশোনা আটকায়নি।

এছাড়া তিনি তাঁর শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কেও ওই নেটিজেনকে অবগত করেন। তিনি লেখেন, সেন্ট জেভিয়ার্স থেকে অর্থনীতির স্নাতক হয়েছি তারপর কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর। যতটুকু ইংরেজি জানি তাতে স্নাতকোত্তরে ফার্স্টক্লাস পেতে অসুবিধে হয়নি। এরপর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম ফিল করেছি মানবী বিদ্যা চর্চায়। সেখানে দ্বিতীয় স্থান পেয়েছিলাম। আপাতত পি এইচ উপরোক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই জমা দিয়েছি। আশা করছি, কিছুদিনের মধ্যেই ডক্টরেট পাব। ও হ্য়াঁ, আমার এম ফিল ও পি এইচ ডি দটোই বাংলায় লেখা। এ রাজ্যে এখনও উচ্চশিক্ষা মাতৃভাষায় সম্ভব। আপনার মাতৃভাষার বুৎপত্তি নিশ্চয় ইংরাজির মতই ভাল। এই লিখে কিছু পরিভাষাও লিখে দেন তিনি। তাঁর এই উত্তরে অনেকেই তাঁকে সমর্থন করেছেন। এই পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় আসতেই মুহূর্তে ভাইরাল হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.