ভ্যাকসিন নিলে ৬০ দিন দেওয়া যাবে না রক্ত! টিকাকরণের আগেই রক্তদানের অনুরোধ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

ভ্যাকসিন নিলে ৬০ দিন দেওয়া যাবে না রক্ত! টিকাকরণের আগেই রক্তদানের অনুরোধ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর / প্রতীকী ছবি
ভ্যাকসিন নিলে ৬০ দিন দেওয়া যাবে না রক্ত! টিকাকরণের আগেই রক্তদানের অনুরোধ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর / প্রতীকী ছবি

করোনা আতঙ্কে কার্যত জেরবার গোটা দেশ। বর্তমানে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১,৭৩, ০৬,৬৪৭ জন। লাফ দিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের হার। করোনার মোকাবিলায় এরই মধ্যে দেশজুড়ে জারি রয়েছে টিকাকরণ প্রক্রিয়া। ছড়িয়ে পড়া করোনার প্রকোপ রুখতে ইতিমধ্যেই প্রায় ২৪ লক্ষ মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ের টিকাকরণের পর দিন কয়েক আগে কেন্দ্র ঘোষণা করে, ১ মে থেকেই ১৮ ঊর্ধ্বদের টিকাকরণ শুরু হবে। অর্থাৎ মে মাসের শুরু থেকেই তৃতীয় পর্যায়ের টিকাকরণে চিকিৎসক, প্রথম সারির স্বাস্থ্যকর্মী, কোভিড যোদ্ধা এবং প্রবীণদের পাশাপাশি দেশের ১৮ বছরের বেশি বয়সী সমস্ত নাগরিকরা টিকা নিতে পারবেন। সরকারি হাসপাতালে টিকা বিনামূল্যে দেওয়া হবে। বেসরকারি হাসপাতাল অন্য টিকা কেন্দ্র থেকে মূল্য দিয়ে কিনে টিকা নিতে হবে।

তবে এসবের মধ্যেই দেখা দিয়েছে আরেক বিপদ। তা হল, ব্লাড ব্যাঙ্কগুলিতে রক্তের ঘাটতি। প্রতিবছরই গ্রীষ্মকালীন সময়ে রক্তের সংকট নতুন কিছু নয়। করোনাকালে সে সংকটই আরও তীব্র হয়ে দেখা দিয়েছে। তার ওপর করোনার দাপটে অধিকাংশ রক্তদান শিবিরও করা সম্ভব হয়ে উঠছে না। এসবই রক্তের ঘাটতি বাড়িয়ে তুলেছে দ্বিগুণ। অন্যদিকে, টিকাকরণের পর রক্ত সংকট আরও বাড়বে বলেই আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ, টিকাকরণের ৪৫ থেকে ৬০ দিনের মধ্যে রক্তদান করা যায় না। ফলে, আগামীতে দেশ জুড়ে রক্ত সংকট পৌঁছাতে চলেছে চরমে।এই অবস্থায় দেশবাসীকে রক্তদানে উদ্ধুদ্ধ করতে এবার আসরে নামলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

সম্প্রতি ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট, রিলিফ এবং রিহ্যাবিলিটেশন মন্ত্রী বিজয় ওয়াদেত্তিওয়ার দেশবাসীর কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন, টিকাকরণের আগে যেন দেশের প্রতিটি সক্ষম নাগরিক একবার রক্তদান করেন। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বর্তমানে দেশের অধিকাংশ নাগরিকই করোনা আক্রান্ত। তার মধ্যে অন্যান্য রোগের চিকিৎসাও চলছে। ফলে এই সময় রক্তের চাহিদা চরমে। তাই সকল দেশবাসীর কাছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আর্জি জানান, দেশের বর্তমান পরিস্থিতির কথা ভেবে প্রত্যেকে যেন রক্তদানের পরই টিকা নেন। কারণ, টিকাকরণের পর ৬০ দিনের মধ্যে আর রক্ত দেওয়া যাবে না। তাই আগেই শুভ কাজটি সম্পন্ন করে নেওয়ার কথা বলেছেন তিনি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এও মনে করছেন, দেশের সকল সক্ষম নাগরিক রক্তদান করলেই বর্তমান সংকট কিছুটা হলেও কেটে যাবে। রক্তের অভাবও মিটবে। এবার মন্ত্রীর এই আর্জি দেশের সাধারণ মানুষ কতটা গ্রহণ করেন তা-ই দেখার!

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.