এবার প্রশ্নের মুখে কোহলির ওয়ানডে নেতৃত্বও! সৌরভ-শাহের হাতেই কি চূড়ান্ত হবে মহাতারকার ভাগ্য?

এবার প্রশ্নের মুখে কোহলির ওয়ানডে নেতৃত্বও! সৌরভ-শাহের হাতেই কি চূড়ান্ত হবে মহাতারকার ভাগ্য?
এবার প্রশ্নের মুখে কোহলির ওয়ানডে নেতৃত্বও! সৌরভ-শাহের হাতেই কি চূড়ান্ত হবে মহাতারকার ভাগ্য?

টি-২০ বিশ্বকাপের পরই কুড়ি ওভারের ক্রিকেটের অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন বিরাট কোহলি। তারপর থেকেই হাওয়ায় ভাসছে আরেকটি জল্পনা৷ টি-২০-র পর এবার কি একদিনের ক্রিকেটের অধিনায়কত্বও হারাতে চলেছেন কোহলি? জানা যাচ্ছে, সাদা বলের দুই ফরম্যাটেই নেতৃত্ব ছাড়তে হতে পারে কোহলিকে৷ তাঁর ভাগ্য এখন রয়েছে স্বয়ং বোর্ড সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি ও সচিব জয় শাহের হাতে। চলতি সপ্তাহেই ঠিক হয়ে যাবে জাতীয় ওয়ানডে দলের ক্যাপ্টেন হিসেবে বিরাটকে রাখা হবে কিনা।

সামনেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যেতে চলেছে ভারতীয় দল। তার আগেই সেই সফরের জন্য স্কোয়াড নির্বাচন করবেন চেতন শর্মার নেতৃত্বাধীন নির্বাচকরা। এছাড়াও আগামী টি-২০ বিশ্বকাপের আগে গোটা বছরে ভারত খেলতে হবে মাত্র ৯টা ওয়ান-ডে। এর মধ্যে ৬টি বিদেশে। মাত্র ৩টি খেলা হবে দেশের মাটিতে। তাই সব কিছু চিন্তাভাবনা করেই বিরাটের নেতৃত্ব নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে৷

বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেট মহলে দুই ধরনের আলোচনার কথা শোনা যাচ্ছে। বিসিসিআই-এর একাংশ মনে করছেন, যেহেতু এই বছর খুব অল্প সংখ্যক কিছু ওয়ান-ডে খেলা হবে তাই কোহলির হাতেই ক্যাপ্টেন্সির দায়িত্ব থাকুক। আবার অনেকে ‘২৩ ওয়ান-ডে বিশ্বকাপের প্রস্তুতির কথা চিন্তা করে রোহিতকে অধিনায়ক করার প্রসঙ্গ তুলছেন। যদিও এই দুই আলোচনা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখনও নেওয়া হয়নি। তবে এটুকু বোঝা যাচ্ছে কোহলির ভাগ্য চূড়ান্ত করতে চলেছেন সৌরভ গাঙ্গুলি ও জয় শাহ-ই। আগামী ৪ ডিসেম্বর কলকাতায় বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভা আয়োজিত হতে চলেছে। সেখানে কোহলির ভাগ্য নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে।

বর্তমানে, দক্ষিণ আফ্রিকায় ‘ওমিক্রন’ হানায় ভারতের সফর আদৌ সম্ভব কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড ও কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতি মুহূর্তে আলোচনা চলছে। কেন্দীয় সরকারের তরফ থেকে সবুজ সঙ্কেত মিললেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের জন্য দল নির্বাচন করবেন নির্বাচকরা। আর তখনই জানা যাবে একদিনের ক্রিকেটের অধিনায়ক হিসেবে বিরাট কোহলির ভবিষ্যৎ ঠিক কী হতে চলেছে।

এই প্রসঙ্গে বুধবার বোর্ডের এক শীর্ষকর্তা জানিয়েছেন, “আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের দল ঘোষণা করে দেওয়া হবে। আমরা সমস্ত প্রস্তুতি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায় রয়েছি। যদি শেষ মুহূর্তে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এই সফর বাতিল করার কথা বলা হয়, সেটাই করা হবে। তবে তার আগে স্কোয়াড নির্বাচন করে আমরা প্রস্তুত থাকব।”