পুজোর আগেই ওজন কমাতে চান? সাহায্য করবে এই ফল, জেনে নিন

পুজোর আগেই ওজন কমাতে চান? সাহায্য করবে এই ফল, জেনে নিন
পুজোর আগেই ওজন কমাতে চান? সাহায্য করবে এই ফল, জেনে নিন

ওজন কমাতে তো অনেক রকম পদ্ধতিই ব্যাবহার করেছেন। আর ডায়েট প্লান তো চলছেই সাথে এই সবুজ রঙের ফলটি খেতে পারেন। হ্যাঁ ঠিকই ধরেছেন, আমরা নাশপাতি সম্পর্কে কথা বলছি। আপনি জেনে অবাক হবেন এতে পটাশিয়াম, পেকটিন, ট্যানিন এর মত উপাদান রয়েছে যা ওজন কমাতে খুবই কার্যকরী।

ফলের মধ্যে জল, ভিটামিন, ফাইবার, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট-সহ বিভিন্ন ধরনের পুষ্টি উপাদান থাকায় ফল খায় সব মানুষই। ফলের মধ্যে প্রাকৃতিক চিনি পাওয়া যায়, যা শরীরের জন্য ক্ষতিকর। অনেকেই জানেন না, রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে গেলে জানা উচিত কোন ফলগুলিতে চিনির পরিমাণ বেশি। সেগুলো জেনে তবেই তা খাওয়া উচিত।

জেনে নিন কোন ফলের মধ্যে চিনি বেশি এবং কোন ফলের মধ্যে প্রাকৃতিক চিনি খুবই কম। নাশপাতিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, বি, বি ২, ই, ফলিক অ্যাসিড ও নিয়াসিন নামের পুষ্টিকর উপাদান। ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, কপার, আয়রন-সহ অন্যান্য মিনারেলেরও উৎকৃষ্ট উৎস। এছাড়াও, নাশপাতিতে ক্যালোরি কম থাকে, যা ওজন কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহন করে। একটি মাঝারি আকারের নাশপাতিতে প্রায় ৬ গ্রাম ফাইবার থাকে। এটি মহিলাদের দৈনিক খাওয়ার ২৪ শতাংশের সমতুল্য।

আসুন আমরা জেনে নিই যে আপনি যদি ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার খান, তাহলে এটি আপনার পেটকে দীর্ঘ সময় ভরা রাখে এবং একই সঙ্গে এটি আপনার হজমকেও ধীর করে দেয়। ওজন কমানোর প্রক্রিয়ায় ক্যালোরি গ্রহণ করা কমানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচিত হয়। এর মাধ্যমে শরীরের ওজনও কম হয়। এমন পরিস্থিতিতে আপনাকে আপনার দিনের বেশিরভাগ ক্যালরি বার্ন করতে হবে।

আপনাকে কত ক্যালরি গ্রহণ করতে হবে তাও হিসেব রাখতে হবে। এই অবস্থায় নাশপাতি সেরা ফল হিসেবে প্রমাণিত হতে পারে। প্রকৃতপক্ষে, একটি নাশপাতির ভিতরে ৫৬ গ্রাম থেকে ১০০ গ্রাম ক্যালোরি রয়েছে। ওজন কমানোর সময় ক্যালোরি গ্রহণ নিয়ন্ত্রণ করতে নাশপাতি ব্যবহার করা যেতে পারে। নাশপাতির ভিতর ৮৪ শতাংশ জল। ফলে খুব বেশি ক্যালোরি শরীরে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই।