হাতিকে তাড়া করছে একদল উন্মত্ত জনতা! ভিডিও দেখে ক্ষোভে ফুঁসছেন নেটজনতা

হাতিকে তাড়া করছে একদল উন্মত্ত জনতা! ভিডিও দেখে ক্ষোভে ফুঁসছেন নেটজনতা / Image Source- Screengrab from Video Tweeted By @SudhaRamenIFS
হাতিকে তাড়া করছে একদল উন্মত্ত জনতা! ভিডিও দেখে ক্ষোভে ফুঁসছেন নেটজনতা / Image Source- Screengrab from Video Tweeted By @SudhaRamenIFS

ভারতের ওয়াইল্ডলাইফ ট্রাস্টের মতে, বর্তমানে হাতি এবং মানুষের মধ্যে দ্বন্দ্ব ক্রমশ বেড়েই চলেছে। দেশের হাতির আবাসস্থলের বেশিরভাগ অংশই এখন মানুষের দখলে। আজকাল বন-জঙ্গল কেটে সেখানে বসতবাড়ি থেকে কারখানা গড়ে তোলা হচ্ছে। ফলে বিঘ্নিত হচ্ছে বন্য পশুদের স্বাভাবিক জীবনযাপন। বিশেষ করে হাতির মতো বিশালাকার পশুর ক্ষেত্রে তা বেশ অসুবিধার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফলে ইদানীং প্রায়শয়ই শোনা যাচ্ছে, মানুষের বাসস্থানের অঞ্চলে হানা দিচ্ছে হাতির দল৷ তাতে বাড়ছে হাতি-মানুষের দ্বন্দ্বও।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এমনই একটি ভিডিও। যেখানে দেখা যাচ্ছে, মানুষের বসবাসের এলাকায় ঢুকে পড়ার জন্য একদল উন্মত্ত জনতা তাড়া করছে আস্ত একটি হাতিকে। আর হাতিটি প্রাণভয়ে পালানোর চেষ্টা করছে। তা দেখে তীব্র সমালোচনায় ফেটে পড়েছেন নেটিজেনরা৷ মানুষগুলিকে ‘অমানবিক’ আখ্যা দিতেও ছাড়েননি তাঁরা।

ভিডিওটি টুইটারে শেয়ার করেছেন আইএফএসের কর্মকর্তা সুধা রমেন। ক্যাপশনে জনগনের উদ্দেশ্য একটি বার্তা দিয়ে তিনি লিখেছেন, “মানুষের মতো, প্রাণীরা তাদের সীমানার সীমাবদ্ধতা জানে না৷ তাই বনাঞ্চলের বসবাসকারী লোকদের কখনই আতঙ্কিত হওয়া উচিত নয়। কারণ এতে প্রাণীগুলি আরও ক্ষেপে উঠতে পারে। তাদেরও পাশ কাটিয়ে যাওয়ার অধিকার রয়েছে।” ইতিমধ্যেই ভিডিওটি ঘিরে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে নেটমাধ্যমে। প্রাণীটিকে ওই ভাবে তাড়া করানোর জন্য এলাকা মানুষগুলিকে সমালোচনায় বিদ্ধ করেছেন সকলে। এটি যে অত্যন্ত লজ্জাজনক একটি আচরণ, তাও স্বীকার করেছেন নেটজনতা।

দেখুন ভিডিওটিঃ

 

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.