রেকর্ড হারে কমল তাপমাত্রা! বৃষ্টি কি চলবেই? কি জানাচ্ছে হাওয়া ভবন?

রেকর্ড হারে কমল তাপমাত্রা! বৃষ্টি কি চলবেই? কি জানাচ্ছে হাওয়া ভবন?
রেকর্ড হারে কমল তাপমাত্রা! বৃষ্টি কি চলবেই? কি জানাচ্ছে হাওয়া ভবন? প্রতীকী ছবি

পশ্চিমী ঝঞ্ঝার কারণে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছিল শীত। তবে শুক্রবার থেকেই রেকর্ড পারদ পতন হতে শুরু করেছে। এক ধাক্কায় অনেকটাই নেমেছে তাপমাত্রা। দিনের পাশাপাশি কমেছে রাতের তাপমাত্রা। রাতারাতি প্রায় ২ ডিগ্রি পতন ঘটেছে রাতের তাপমাত্রায়।

তিনটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝার কারণে জাঁকিয়ে শীতের দাপট বেশিদিন স্থায়ী হয়নি জানুয়ারির প্রথম দিকে। ৫ তারিখ থেকে আবার রাতের তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করে। তবে আবহাওয়াবিদরা জানিয়ে দিয়েছিলেন, ১৩-১৪ তারিখ নাগাদ ফের তাপমাত্রা কমতে পারে। সেই পূর্বাভাস মতোই তাপমাত্রা কমেছে দুই বঙ্গে।

আলিপুর আবহাওয়া অফিস জানাচ্ছে, বৃহষ্পতিবার তাপমাত্রা ছিল ২৫.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার এক ধাক্কায় সেই তাপমাত্রা গিয়ে কমে দাঁড়ায় ২০. ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা এই সময়ের স্বাভাবিকের থেকে ৫ ডিগ্রি কম।শুক্রবার রাতের তাপমাত্রা নামে ১৬. ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা এই সময়ে স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম।

এদিকে শনিবার সকালের দিকে বৃষ্টির পূর্বাভাস থাকলেও বেলা বাড়তেই উধাও হবে বৃষ্টি। দক্ষিণ ২৪ পরগনা, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর। উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার এবং আলিপুরদুয়ারে আজ হালকা বৃষ্টি হবে। দু এক জায়গায় বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টিও হতে পারে । রবিবার থেকে শুষ্ক হবে আবহাওয়া। তবে উত্তরের জেলাগুলিতে আগামী এক সপ্তাহ ঘন কুয়াশার দাপট থাকবে।