পরিবেশ রক্ষার তাগিদেই ভোটের ময়দানে রাসবিহারীর এই নির্দল প্রার্থী!

পরিবেশ রক্ষার তাগিদেই ভোটের ময়দানে রাসবিহারীর এই নির্দল প্রার্থী!
পরিবেশ রক্ষার তাগিদেই ভোটের ময়দানে রাসবিহারীর এই নির্দল প্রার্থী!

রাজ্যে চলছে একুশের বিধানসভা নির্বাচন। এতদিন চলছিল তার-ই প্রচার। প্রচারে ঝড় তুলেছে ডান, বাম সব দলই। উঠেছে একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগের ঢেউ, কটাক্ষের নিশানা। তবে এসব থেকে শত হস্ত দূরে দাঁড়িয়ে নীরজ আগরওয়াল। চলতি বছরে রাসবিহারী কেন্দ্রের নির্দল প্রার্থী তিনি। আর তাঁর মূল লক্ষ্য, পরিবেশ রক্ষা। সেই তাগিদেই ভোটের ময়দানে নেমেছেন এই নির্দল প্রার্থী।

লেক গার্ডেন্সের বাসিন্দা নীরজ আগরওয়ালের কথায়, “কোভিডের চেয়ে বায়ু দূষণে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। বায়ু দূষণ, জল দূষণ এবং জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দলেরই ভাবা উচিৎ। তাই কোভিড এবং দূষণ, দুটোর বিরুদ্ধেই এখন লড়তে হবে আমাদের।” তাই চলতি বছরের নির্বাচনে তাঁর মূল ইস্যু, পরিবেশ দূষণ, জল দূষণ, সবুজায়ন, জলবায়ু পরিবর্তন, বিশ্ব উষ্ণায়ন সহ পরিবেশের সামগ্রিক উন্নয়ন।

এগুলির ওপর ভিত্তি করেই এতদিন প্রচার চালিয়েছেন তিনি। ঘুরেছেন মানুষের দোরে দোরে। নিজের অনুরাগীদের সঙ্গে নিয়ে মুখে মাস্ক পড়ে পরিবেশের জন্য ভোট চেয়েছেন নীরজ আগরওয়াল। এলাকার প্রত্যেকটি মানুষের কাছে আশপাশের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার আবেদন জানিয়েছেন তিনি। কখনও মিলেছে প্রশংসা। আবার কখনও কপালে জুটেছে বিদ্রুপ। তবু হাল ছাড়তে নারাজ তিনি। এভাবেই লড়ে যাচ্ছেন ভোটের লড়াইয়ে।

তবে এবারই প্রথম নয় । এর আগে ২০১৯ সালের লােকসভা নির্বাচনেও দক্ষিণ কলকাতা থেকে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। একই রকম ভাবে পরিবেশ রক্ষার তাগিদ নিয়েই৷ তবে জিততে পারেননি। এ বছর বিধানসভা নির্বাচনে তাঁর মুখোমুখি লড়াই তৃণমূলের প্রার্থী দেবাশিস কুমার, বিজেপির প্রার্থী প্রাক্তন লেফটেন্যান্ট জেনারেল সুব্রত সাহা এবং সংযুক্ত মােচার তরফে কংগ্রেস প্রার্থী আশুতােষ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে। এবারও তিনি নিশ্চিত এঁদের সঙ্গে লড়াইয়ে হয়তো জেতা হয়ে উঠবে না নীরজের। কিন্তু প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা বাড়বে বলেই তাঁর স্থির বিশ্বাস! তবে জিততে না পারলেও সাধারণ মানুষ এবং রাজনৈতিক দলগুলিকে সচেতন করার কাজ তিনি চালিয়েই যাবেন। তাতে যদি সমাজের একটু হলেও পরিবর্তন আসে, ক্ষতি তো নেই-ই! বরং তা লাভজনকই বটে!

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.