৫ সপ্তাহ পর, রাজ্যে করোনায় দৈনিক মৃত্যু একশোর কম, কমল সংক্রমণও

৫ সপ্তাহ পর, রাজ্যে করোনায় দৈনিক মৃত্যু একশোর কম, কমল সংক্রমণও
৫ সপ্তাহ পর, রাজ্যে করোনায় দৈনিক মৃত্যু একশোর কম, কমল সংক্রমণও / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনা সংক্রমণের মোকাবিলায় দেশব্যাপী চলছে লকডাউন এবং কড়া বিধিনিষেধ। বাংলাও এর ব্যতিক্রম নয়। বাংলায় ১৬ মে থেকে জারি রয়েছে কড়া বিধিনিষেধ। এর সুফলও মিলছে। প্রতিদিন কমছে দৈনিক সংক্রমণ। আগের থেকে করোনা পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। উল্লেখ্য, দীর্ঘ ৩৫ দিন পর, বাংলায় দৈনিক মৃত্যু ১০০-র কম।

মঙ্গলবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫,৪২৭ জন। গতকালের থেকে সংক্রমণ কিছুটা কম। গতকাল রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ ছিল ৫,৮৮৭ জন।

স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে, রাজ্যে প্রথম স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা জেলা। গত ২৪ ঘণ্টায় এই জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১,১০৯ জন। গতকালের থেকে এই সংখ্যাটা কিছুটা কম। গতকাল উত্তর ২৪ পরগণায় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১,১৮১ জন। এরপর দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছে কলকাতা। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫২৮ জন। বহুদিন বাদে কলকাতায় সংক্রমণের সংখ্যা এতো কম হল। গতকাল কলকাতায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৬১০ জন। দিন কয়েক আগেই এই দুই জেলায় সংক্রমণের সংখ্যাটা ছিল দৈনিক ৩ হাজারেরও বেশি। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেও করোনা সংক্রমণ নিম্নমুখী। তবে, এখনও উদ্বেগে রাখছে রাজ্যের অন্যতম আকর্ষণীয় পর্যটনস্থল দার্জিলিং। সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর জেরে এখন রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪,৩২,০১৯।

প্রতীকী ছবি

অন্যদিকে, ৫ সপ্তাহ পর, রাজ্যে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১০০-র কম। একদিনে ভাইরাসের বলি ৯৮ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে ১৬ হাজার ৪৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে আশার আলো দেখাচ্ছেন কোভিডজয়ীরাই। গত ২৪ ঘণ্টাতে করোনাকে পরাস্ত করে সুস্থ হয়েছেন ১২ হাজার ২৯০ জন। যার মধ্যে শুধু উত্তর ২৪ পরগনাতেই একদিনে সুস্থ ১,৫১৬ জন। কলকাতায় ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৮৩৯ জন। এ নিয়ে রাজ্যে  মোট ১৪ লক্ষ ১ হাজার ৬১ জন করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন। বর্তমানে সুস্থতার হার ৯৭.৪৭ শতাংশ।

সুস্থতার হার বাড়ার পাশাপাশি রাজ্যে কমছে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যাও। বর্তমানে করোনায় চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ১৯ হাজার ৯২৫ জন। দেশজুড়ে টিকাকরণের পাশাপাশি চলছে করোনার টেস্টিংও। ব্যতিক্রম নয় বাংলাও। রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৬০ হাজার ১৭৬ জনের।