জোড়া নিম্নচাপের ভ্রূকুটি! আরও দু’দিন ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস বাংলায়, কী জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর?

জোড়া নিম্নচাপের ভ্রূকুটি! আরও দু’দিন ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস বাংলায়, কী জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর?
জোড়া নিম্নচাপের ভ্রূকুটি! আরও দু’দিন ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস বাংলায়, কী জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর? / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ একটা নয়, দু’দুটি নিম্নচাপের ভ্রূকুটি। দুর্গা পুজোয় সেভাবে বৃষ্টি না হলেও, কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর আগে থেকেই ফের স্বমহিমায় বর্ষা। ফের তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ। সেই কারণেই দশমী কাটতে না কাটতেই আবারও বৃষ্টি শুরু হয়েছে রাজ্যজুড়ে। এবার আর বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি নয়, হাওয়া অফিস সূত্রে জানা গিয়েছে, নিম্নচাপের প্রভাবে এবার গোটা রাজ্যজুড়েই ভারী থেকে অতিভারি বৃষ্টি চলবে। এর সঙ্গে বজ্রপাতের সম্ভবনাও রয়েছে। তাই দুর্গা পুজোয় রেহাই দিলেও কোজাগরী লক্ষ্মীর আরাধনায় বাধ সাধতে চলেছে বর্ষা।

দুটি নিম্নচাপের মধ্যে একটি ওড়িশা লাগোয়া অংশে আর একটি মধ্যপ্রদেশের উপর অবস্থান করছে। এই জোড়া নিম্নচাপের প্রভাবে বাংলায় ফের দুর্যোগের ঘনঘটা। এর জেরে আগামী দু’দিন বাংলায় ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে।

এদিকে, আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, ১৮, ১৯ এবং ২০ তারিখ দক্ষিণবঙ্গের প্রায় প্রত্যেকটি জেলাতেই বৃষ্টিপাত হবে। এর মধ্যে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে দুই মেদিনীপুর, দুই ২৪ পরগণা, কলকাতা, হাওড়া এবং ঝাড়গ্রামে। হাওয়া অফিস সূত্রে জানা গিয়েছে যে, লক্ষ্মীপুজোর দিন বৃষ্টির পরিমাণ কমলেও আবহাওয়ার উন্নতির কোনও সম্ভবনা নেই। তবে, আগামী ২১ অক্টোবর থেকে ধীরে ধীরে আবহাওয়ার উন্নতি হবে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ‘একটি নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ওডিশা উপকূলের উপর। এর ফলে প্রচুর পরিমাণে দক্ষিণা বাতাস প্রবেশ করছে বঙ্গে। এর জেরে আজ থেকে লক্ষ্মীপুজো পর্যন্ত বৃষ্টিপাত চলবে গোটা দক্ষিণবঙ্গ জুড়েই। অন্য আরেকটি নিম্নচাপ অবস্থান করছে মধ্যপ্রদেশের উপর। দুইয়ে মিলিয়ে আবহাওয়ার পরিবর্তন হচ্ছে বঙ্গে।’

জানা গিয়েছে, আগামী দু’দিনে ৭০ থেকে ২০০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। কলকাতায় জারি করা হয়েছে কমলা সতর্কতা। কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, ঝাড়গ্রাম ও দুই মেদিনীপুরে। ৭০ থেকে ১১০ মিলিমিটার বৃষ্টি হবে। দক্ষিণবঙ্গের অন্য জেলাতেও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। মঙ্গলবার ভারী বৃষ্টি হবে কলকাতা, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনায়। লক্ষ্মীপুজোর দিন অর্থাৎ আগামী ২০ তারিখ ভারী বৃষ্টি হবে বীরভূম ও মুর্শিদাবাদে।

শুধু যে দক্ষিণবঙ্গেই দুর্যোগের ঘনঘটা তাই নয়, উত্তরেও ঘনাচ্ছে দুর্যোগের কালো মেঘ। সোমবার অর্থাৎ ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, সোমবার হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার জেলায়। মঙ্গলবার থেকে বৃষ্টি বাড়বে দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ারে। এদিকে হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে কোচবিহার, মালদা, দুই দিনাজপুরে। এই জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। লক্ষ্মীপুজোর দিন ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হবে জলপাইগুড়ি কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারে।‌ পাশাপাশি দার্জিলিং এবং কালিম্পঙে ধস নামার আশঙ্কা রয়েছে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত দীঘায় ১২ সেন্টিমিটার, ক্যানিংয়ে ১১ সেন্টিমিটার, ডায়মন্ডহারবারে ১০ সেন্টিমিটার, সাগরদ্বীপ ও পশ্চিম মেদিনীপুর ৮ সেন্টিমিটার, কলাইকুন্ডা, কন্টাই, হলদিয়ায় ৭ সেন্টিমিটার, দমদম ব্যারাকপুর, পানাগড়ে ৫ সেন্টিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে, আগামী দু’দিন সমুদ্র উত্তাল থাকবে, পাশাপাশি উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। রবিবারের মধ্যেই মাঝ সমুদ্র থেকে ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মৎস্যজীবীদের বুধবার পর্যন্ত মাছ ধরার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।