শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

ঘুচল না বন্দিদশা! অনুব্রত মণ্ডলকে ফের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ আসানসোল আদালতের

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৯, ২০২২, ০৩:৫৩ পিএম | আপডেট: ডিসেম্বর ৯, ২০২২, ০৩:৫৩ পিএম

ঘুচল না বন্দিদশা! অনুব্রত মণ্ডলকে ফের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ আসানসোল আদালতের
ঘুচল না বন্দিদশা! অনুব্রত মণ্ডলকে ফের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ আসানসোল আদালতের

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ এবারও মিলল না জেলবন্দি দশা থেকে মুক্তি। গরু পাচার মামলায় আবারও এদিন ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল আসানসোল আদালত। সূত্রের খবর, কলকাতা হাইকোর্টে জামিনের আর্জি জানানোর জন্য আসানসোল আদালতে আলাদা করে জামিনের আর্জি জানাননি অনুব্রত মণ্ডলের আইনজীবী। উল্লেখ্য চলতি মাসের ২২ তারিখ ফের আদালতে তোলা হবে অনুব্রত মণ্ডলকে।

সময় শেষ হওয়ায় এদিন আসানসোল আদালতে তোলা হয় অনুব্রত মণ্ডলকে। এদিন বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের জামিনের আর্জি জানাননি তাঁর আইনজীবী। তবে, জামিনের আবেদন না জানালেও, দুটি আবেদন জানান। তার মধ্যে একটি হল ভোলেব্যোম রাইস মিলের অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করে দেওয়া হয়েছে, সেই অ্যাকাউন্ট খুলে দেওয়ার। এর পাশাপাশি অনুব্রত মণ্ডলের যে দুটি ফোন বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে, সেগুলি ফিরিয়ে দেওয়ার আর্জিও জানানো হয়।

এই আবেদন দুটির মধ্যে অ্যাকাউন্ট নিয়ে বিচারক এদিন কিছু বলেননি। তবে, ফোনের বিষয়টি নিয়ে তদন্তকারী আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেন। তারপরে বিচারক জানান যে, ফোন ফেরত দেওয়া সম্ভব নয়। শুনানি শেষে ফের অনুব্রত মণ্ডলকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারপতি।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গরুপাচার মামলায় অনুব্রত মণ্ডলের সিবিআইয়ের হাতে গ্রেপ্তারির পর ১০০ দিনেরও বেশি সময় অতিবাহিত হয়েছে। তারপরেও মেলেনি জামিন। এদিকে, সম্প্রতি সিবিআই-এর গ্রেফতারির পর বীরভূমের তৃণমূলের জেলা সভাপতিকে গ্রেফতার করেছে করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডি। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁকে দিল্লিতে নিয়ে যাওয়ার তোড়জোড় শুরু হয়। জেরার স্বার্থেই তদন্তকারীরা তাঁকে দিল্লি নিয়ে যেতে চান। সেই মামলায় শুনানি স্থগিত থাকায়, এখনই তাঁকে দিল্লি নিয়ে যেতে পারবে না ইডি। এই পরিস্থিতিতে জামিনের আরজি নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। সেই কারণে এদিন আসানসোল আদালতে জামিনের আরজি জানালেন না অনুব্রতর আইনজীবী।