বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২

কুমারগঞ্জের ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা নিয়ে টুইট করে বিতর্কে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার!

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২২, ০৭:৫২ পিএম | আপডেট: মে ১৩, ২০২২, ০৭:৫২ পিএম

কুমারগঞ্জের ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা নিয়ে টুইট করে বিতর্কে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার!
কুমারগঞ্জের ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা নিয়ে টুইট করে বিতর্কে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার!

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ এবার বিপাকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। কুমারগঞ্জের আদিবাসী মহিলাকে ধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় টুইট করে বিতর্কে জড়ালেন সুকান্ত মজুমদার। অভিযোগ, টুইটারে নির্যাতিতার নাম প্রকাশ করেছিলেন তিনি। তবে, এই বিষয়ের জন্য পরে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছেন বিজেপি সাংসদ। 

ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার। এদিন রাতে দক্ষিণ দিনাজপুরের কুমারগঞ্জ ব্লকের সোমজিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বারোমাসা এলাকার জঙ্গল থেকে উদ্ধার হয় এক আদিবাসী মহিলার অর্ধনগ্ন দেহ। অভিযোগ ওঠে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে তাঁকে। সঙ্গে সঙ্গে অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি তোলে রাজ্য বিজেপি। শুক্রবার সকালে দেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। 

এদিকে, শুক্রবার সকালে এই ঘটনা প্রসঙ্গে টুইট করেছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। সেই টুইটে তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করেন। অভিযোগ, সেই টুইটে নির্যাতিতার নাম প্রকাশ করেছেন সুকান্ত মজুমদার। এরপরই শুরু হয় বিতর্ক, কারণ আইন মোতাবেক নির্যাতিতার নাম প্রকাশ করা যায় না। 

বিতর্ক শুরু হতেই সেই টুইট ডিলিট করে দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি ঠিক করা হয়েছে। এটা একেবারেই অনিচ্ছাকৃত, ভুল। আমার টুইটার অ্যাকাউন্টটি যিনি হ্যান্ডেল করেন, তাঁকে জানানো হলে সঙ্গে সঙ্গে সংশোধন করা হয়েছে। এরকম ঘটনা কখনই কাম্য নয়।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মৃত আদিবাসী মহিলা দক্ষিণ দিনাজপুরের কুমারগঞ্জ ব্লকের সোমজিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বারোমাসা এলাকারই বাসিন্দা। ওই নির্যাতিতা মহিলার পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার দুপুর থেকেই ওই মহিলা নিখোঁজ ছিলেন। এরপর বেশি রাতে তাঁর বাড়ির পাশের জঙ্গলেই অর্ধনগ্ন অবস্থায় উদ্ধার হয় ওই আদিবাসী মহিলার দেহ। এই কথা জানাজানি হতেই সেখানে স্থানীয়রা ভিড় করেন। খবর দেওয়া হয় পুলিশেও। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ অনুমান করছে যে, ধর্ষণের পর, প্রমাণ লোপাটের উদ্দেশ্যেই ওই মহিলাকে খুন করা হয়েছে।