রবিবার, ০২ অক্টোবর, ২০২২

তৃতীয় দিনে কুড়মিদের অবরোধ! আজও বাতিল দক্ষিণ-পূর্ব রেলের একাধিক ট্রেন, রইল তালিকা

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২, ১০:০৩ এএম | আপডেট: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২, ১০:০৩ এএম

তৃতীয় দিনে কুড়মিদের অবরোধ! আজও বাতিল দক্ষিণ-পূর্ব রেলের একাধিক ট্রেন, রইল তালিকা
তৃতীয় দিনে কুড়মিদের অবরোধ! আজও বাতিল দক্ষিণ-পূর্ব রেলের একাধিক ট্রেন, রইল তালিকা / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ আজকে নিয়ে তৃতীয় দিনে পড়ল কুড়মিদের রেল রোকো অভিযান। দক্ষিণ-পূর্ব রেলের খড়গপুর টাটা সেকশন ও চান্ডিল আসানসোল সেকশনে রেল অবরোধ করা হয়েছে। এর জেরে আজ, বৃহস্পতিবারও একাধিক দুরপাল্লার ট্রেন বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই প্রসঙ্গে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক আদিত্য কুমার চৌধুরী জানিয়েছেন যে, গত তিন দিন ধরেই বিক্ষোভ চলছে। দক্ষিণ-পূর্ব রেল এখনও পর্যন্ত ১৮ টি দুরপাল্লার ট্রেন বাতিল করেছে। পাশাপাশি বেশ কয়েকটি ট্রেন ঘুরপথে চালানো হচ্ছে। আবার কয়েকটি ট্রেনকে গন্তব্যস্থলের আগেই দাঁড় করিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।

এবার দেখে নেওয়া যাক, আজ এই কুড়মিদের অবরোধের জেরে কোন কোন ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। ১) টাটানগর-হাওড়া স্টিল এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন), ২) হাওড়া-বারবিল জনশতাব্দী এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন), ৩) ধানবাদ-টাটানগর এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন), ৪) টাটানগর-দানাপুর এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন), ৫) সাঁতরাগাছি-পুরুলিয়া রূপসী বাংলা এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন), ৬) রাঁচি-হাওড়া ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস, ৭) খড়গপুর-ঝাড়গ্রাম মেমু স্পেশাল (আপ এবং ডাউন), ৮) খড়গপুর-টাটানগর মেমু স্পেশাল (আপ এবং ডাউন), ৯) ঝাড়গ্রাম-ধানবাদ এক্সপ্রেস।

আজ এই অবরোধের কারণে কোন কোন ট্রেনের রুটে বদল করা হয়েছে? আজ যেসব ট্রেনের রু বদল করা হয়েছে, সেগুলি হল, ১) সাঁতরাগাছি-ঝাড়গ্রাম স্পেশাল ট্রেনটি গন্তব্যস্থলের বদলে খড়গপুর পর্যন্ত যাবে। ২) হাওড়া-পুরুলিয়া এক্সপ্রেস আদ্রা পর্যন্ত যাবে। ৩) খড়গপুর-হাতিয়া এক্সপ্রেস আদ্রা পর্যন্ত যাবে এবং ফের ট্রেনটিকে খড়গপুরে ফিরিয়ে আনা হবে। ৪) আপ এবং ডাউন লাইনের খড়গপুর-রাঁচি এক্সপ্রেস আদ্রা পর্যন্ত যাবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, তপশিলি উপজাতি (ST) তালিকাভুক্ত করার দাবিতে দীর্ঘদিন ধরেই আন্দোলন করে আসছে কুড়মি সম্প্রদায়ের সামাজিক সংগঠনগুলি। সেই পুরনো দাবিতেই গত মঙ্গলবার জাতীয় সড়ক অবরোধ এবং রেল রোকো কর্মসূচির ডাক দেয় ছোটনাগপুর টোটেমিক কুড়মি সম্প্রদায়। এরপর এই আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রামেও। পুরুলিয়ার কুস্তাউর স্টেশনেও ট্রেন অবরোধ করা হয়। তবে, শুধুমাত্র বাংলাতেই হচ্ছে না এই বিক্ষোভ, বাংলার পাশাপাশি বিক্ষোভ জারি রয়েছে ঝাড়খণ্ড ও ওডিশাতে জেলাতেও। এদিকে, পরপর তিনদিন এই অবরোধের জেরে ব্যাপক প্রভাব পড়েছে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের ট্রেন চলাচলে। এর পাশাপাশি চূড়ান্ত হয়রানির শিকার হচ্ছেন সাধারণ যাত্রীরা।