বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২

Corona Update West Bengal: গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ফের সামান্য বাড়ল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, আজও মৃত্যুশূন্য বাংলা

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২২, ০৮:৪০ পিএম | আপডেট: মে ১৩, ২০২২, ০৮:৪৩ পিএম

Corona Update West Bengal: গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ফের সামান্য বাড়ল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, আজও মৃত্যুশূন্য বাংলা
গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ফের সামান্য বাড়ল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, আজও মৃত্যুশূন্য বাংলা / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি এখনও অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। রাজ্যের করোনা গ্রাফ এখন স্বস্তি দিচ্ছে। খুলে গেছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ফের স্বাভাবিক হচ্ছে জনজীবন। এদিকে, রাজ্যের করোনা গ্রাফ নিয়ন্ত্রণে থাকলেও, গ্রাফে ওঠানামা অব্যাহত রয়েছে। বৃহস্পতিবার রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছিল, গত ২৪ ঘণ্টায় তা ফের সামান্য বাড়ল। তবে, আজও মৃত্যুশূন্য বাংলা। টিকাকরণ এবং করোনা বিধিনিষেধের জোরে রাজ্য এখন সুস্থতার পথে এগোচ্ছে ক্রমশ। এদিকে, গত ১ এপ্রিল থেকেই করোনাবিধি উঠে গেছে। যদিও মাস্ক পরা এখনও বাধ্যতামূলক।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ জন। গতকালের থেকে ফের বাড়ল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। গতকাল রাজ্যে করোনার দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪২ জন। এই মুহূর্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, ২০ লক্ষ ১৮ হাজার ৭৬৩ জন। রাজ্যে এই মুহূর্তে করোনার পজিটিভিটি রেট দাঁড়িয়েছে ০.৫৪ শতাংশে।

অন্যদিকে, গতকাল করোনায় রাজ্য মৃত্যুশূন্য ছিল। গত ২৪ ঘণ্টাতেও রাজ্যে করোনায় একজনেরও মৃত্যু হয়নি। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ২১ হাজার ২০৩ জন। এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনাকে পরাস্ত করে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৪১ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনাকে পরাস্ত করে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন মোট ১৯ লক্ষ ৯৭ হাজার ১৫৩ জন। সুস্থতার হার ৯৮.৯৩ শতাংশ। 

করোনার মোকাবিলায় জারি রয়েছে টিকাকরণ। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৭২ হাজার ১৬৯ জনকে করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। টিকাকরণের পাশাপাশি আগের মতোই চলছে টেস্টিংও। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৯ হাজার ২৭৭ জনের করোনা পরীক্ষা হয়েছে। ধীরে ধীরে সুস্থতার পথেই এগোচ্ছে রাজ্য।

দেশের অন্যান্য রাজ্যে বিশেষ করে রাজধানী দিল্লিতে নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও, বাংলায় এখনও নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে সংক্রমণ। এদিকে, গত বুধবার নবান্নে জেলাশাসক, মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই বৈঠকে আলোচনা হয় স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়েও। এরপরেই সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত হয়ে মুখ্যমন্ত্রী কড়া বার্তা দেন স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিয়ে। এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সমস্ত জেলার জেলাশাসক, স্বাস্থ্য আধিকারিক ও মেডিক্যাল কলেজে সুপাররা।

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, মালদহ, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, জলপাইগুড়ি ও ঝাড়গ্রাম জেলায় করোনার টিকাকরণের হার এখনও ৯০ শতাংশের নিচে। তাই এই জেলাগুলিতে টিকাকরণ বাড়ানোর পরামর্শ দেন। মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন যে, জেলা হাসপাতাল থেকে রেফার করার প্রবণতা কমাতে হবে। করোনা রোগী নয়, এমন রোগীদের চিকিৎসায় কোনোরকম গাফিলতি করা যাবে না। মুখ্যমন্ত্রীর কড়া নির্দেশ স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোর পরিকাঠামো আরও ভাল করতে হবে।