বামেদের ডাকা ১২ ঘন্টার বাংলা বন্ধ ঘিরে কী চিত্র উঠে আসছে রাজ্যের জেলায় জেলায় একনজরে দেখে নিন

বামেদের ডাকা ১২ ঘন্টার বাংলা বন্ধ ঘিরে কী চিত্র উঠে আসছে রাজ্যের জেলায় জেলায় একনজরে দেখে নিন
বামেদের ডাকা ১২ ঘন্টার বাংলা বন্ধ ঘিরে কী চিত্র উঠে আসছে রাজ্যের জেলায় জেলায় একনজরে দেখে নিন / ফাইল ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ নতুন শিল্প, চাকরি ও সকলের শিক্ষার দাবী নিয়ে ১০টি বাম ছাত্র-যুব সংগঠনের নবান্ন অভিযানকে ঘিরে গতকাল রণক্ষেত্রের আকার নেয় মধ্য কলকাতা। প্রসঙ্গত এসএন ব্যানার্জি রোডে ব্যারিকেড ভেঙে মিছিল এগোনোর চেষ্টা করলে বাধা দেয় পুলিশ। পুলিশি বাধা ভেঙে এগোতে যাওয়ার জন্য বিক্ষোভকারীরা ব্যারিকেড ভেঙে ফেলে। ডোরিনা ক্রসিংয়ে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়। এরপর পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি শুরু হতেই প্রথমে লাঠি চার্জ ও পরে জল কামান ও কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করে পুলিশ। এদিনের পুলিশের নৃশংস নির্যাতনের অভিযোগ করে আজ ১২ ঘন্টার বন্ধ ডাকে বাম সংগঠন। ধর্মঘটকে সমর্থন জানিয়েছেন কংগ্রেস সহ আব্বাস সিদ্দিকির দল ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্ট।

উল্লেখ্য ঝামেলার আশঙ্কা থাকায় মোতায়েন করা হয়েছে বহু পুলিশ। অন্যদিকে নবান্ন এর বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী কোন নির্দিষ্ট কারন ছাড়া আজ সরকারি কর্মীরা ছুটি পাবেন না। আজ সরকারি কর্মীদের তাদের কার্যক্ষেত্রে উপস্থিত থাকতেই হবে নাহলে তাদের চাকরি জীবনের একদিন নষ্ট হবে। অন্যদিকে আজকে বামেদের ডাকা বাংলা বন্ধ কতটা প্রভাব ফেলল রাজ্যের জেলাগুলিতে একনজরে দেখে নেওয়া যাক.. আজ সকাল থেকেই ধর্মতলায় বাস পরিষেবা স্বাভাবিক থাকতেই দেখা যায়। এমনকি বাসস্ট্যান্ডে যাত্রীদের উপস্থিতিও লক্ষ্য করা গেছে। অন্যদিকে, বন্ধ এর প্রভাব পরেনি হাওড়া ব্রিজ, হাজরা মোড় সহ ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলের জুটমিলগুলিতে।

তবে আজকের বামেদের ডাকা বাংলা বন্ধ এর প্রভাবে রাজ্যের নানা জায়গায় অবরোধের ঘটনা ঘটে। যেমন আজ লেকটাউনের যশোর রোডে বাম কর্মী ও সমর্থকরা পথ অবরোধ করেন। অন্যদিকে আজ কোচবিহারে বেসরকারি বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও চলছে সরকারি বাস। এছাড়া কোচবিহারে কেশব রোডে আজকের বন্ধ কে কেন্দ্র করে টায়ার জ্বালায় বাম সমর্থকরা। এছাড়া সিউরি ও রামপুরহাট বাসস্ট্যান্ডে বাম-কংগ্রেসের বিক্ষোভ মিছিলের জেরে আজ সকাল থেকে কোনও বাস ছাড়েনি সেখান থেকে।

অন্যদিকে ডোমজুড় থানার সম্মুখে হাওড়া-আমতা রোডে ফুটবল খেলার মাধ্যমে বাম কর্মী, সমর্থকরা পথ অবরোধ করেন। এছাড়া দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং হাসপাতাল মোড়ে রাস্তায় ওপর ক্যারম খেলতে উদ্ধত হন ধর্মঘটীরা। তার জেরে ক্যানিং-বারুইপুর রোড অসচল হয়ে পড়ে। অন্যদিকে যাদবপুর এইট বি থেকে ধর্মঘটের সমর্থনে সিপিএমের মিছিল বের হয়। এছাড়া সকালের দিকে বারাসাত-চাঁপাডালি মোড়ে সরকারি বাস আটকায় বাম সমর্থকরা। তাঁর জেরে পুলিশের সাথেও বিতর্কের সৃষ্টি হয়।

অন্যদিকে বাম ও কংগ্রেস কর্মীদের পিকেটিং এর জেরে বন্ধ থাকে চুঁচুড়া বাসস্ট্যান্ডের বাস চলাচলও। এছাড়া আজকের বাংলা বন্ধের আংশিক প্রভাব দেখা যায় বাঁকুড়া জেলায়। উল্লেখ্য বন্ধ রয়েছে বেশিরভাগ দোকান। এছাড়া বন্ধ রয়েছে বেসরকারি বাস চলাচলও। আসানসোলে অটোযাত্রীদের অটো থেকে নামিয়ে দেয় ধর্মঘট সমর্থনকারীরা। এছাড়া বর্ধমানে কার্জন গেট এ পথ অবরোধ করে বাম সমর্থকরা, এরই সাথে পুলিশদের হাতে তুলে দেয় গোলাপ।

আরো পড়ুনঃ   দিঘা থেকে উত্তর ২৪ পরগণার দেগঙ্গায় ফেরার পথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে, যাত্রীবোঝাই বাস উল্টে আহত কমপক্ষে ৪০