কবে থেকে খোলা হবে পুরীর মন্দির? জানালো কর্তৃপক্ষ

কবে থেকে খোলা হবে পুরীর মন্দির? জানালো কর্তৃপক্ষ
কবে থেকে খোলা হবে পুরীর মন্দির? জানালো কর্তৃপক্ষ

চলতি বছরেও করোনার দাপটে ভক্ত সমাধান ছাড়াই পুরীতে রথযাত্রা পালনের কথা আগেই জানিয়েছিল মন্দির কর্তৃপক্ষ। এবার কবে মন্দির খুলতে পারে সেই নিয়ে ইঙ্গিত দেওয়া হল। পুরীর মন্দিরের মুখ্য প্রশাসক কিষাণ কুমার জানিয়েছেন, পথের পরে ২৫ জুলাই থেকে খুলে দেওয়া হতে পারে পুরীর জগন্নাথ মন্দির। মন্দির খুলে দেওয়া হলেও সে ক্ষেত্রে জারি থাকবে একাধিক বিধি নিষেধ।

কোভিড আবহে দীর্ঘদিন বন্ধ পুরীর জগন্নাথ মন্দির। গত বছরের মতো এই বছরও ভক্তদের ছাড়াই অনুষ্ঠিত হবে রথযাত্রা। পুরীতে রথযাত্রা পালন হলেও ওড়িশার আর কোথাও রথযাত্রা পালন করা যাবে না বলে ইতিমধ্যেই নির্দেশিকা জারি করেছে রাজ্য সরকার। এছাড়াও এবারে পুরীর রথযাত্রা কেউ কোন ভক্ত অংশ নিতে পারবেন না বলেও জানানো হয়েছে। যে সমস্ত সে বাড়িতে দুটো সিনেমা হয়ে গিয়েছে একমাত্র তারাই এই অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারবেন বলে জানিয়েছেন স্পেশাল রিলিফ কমিশনের প্রদীপ জেনা।

আপাতত ওড়িশায় ভিনরাজ্যের বাসিন্দাদের প্রবেশ চাননা জেলার প্রশাসকরা। করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই তাই এখনই পুরীর মন্দির খোলা হচ্ছে না ভক্তদের জন্য। তবে ২৫ জুলাই ভক্তদের জন্য খুলে যেতে পারে জগন্নাথ ধাম, এমনই সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন মন্দিরের মুখ্য প্রশাসক। কিন্তু মন্দিরে প্রবেশের ক্ষেত্রে ভক্তদের করোনা টিকাকরণ বাধ্যতামূলক হতে পারে। করোনা টিকার দুটি ডোজ নেওয়ার পরেই টিকার সার্টিফিকেট দেখে মন্দিরে প্রবেশ করতে দেওয়া হতে পারে ভক্তদের।

গত বছরের মতো এবারও কোভিডবিধি মেনেই পালিত হবে পুরীর রথযাত্রা। এমনকি পুরী ছাড়া ওড়িশার অন্য কোথাও পালন করা যাবে না রথযাত্রা। আপাতত বিধিনিষেধ মেনেই জগন্নাথের সেবা করছেন মন্দিরের সেবায়েতরা। তবে রথযাত্রা সরাসরি সম্প্রচারের ফ্রিজ সংবাদমাধ্যমগুলোকে পাঠানো হবে। পাশাপশি রথের সময় কারফিউ জারি থাকবে পুরীজুড়ে।প্রসঙ্গত দুই হাজার কুড়ি সালের করো না পরিস্থিতির কারণে সুপ্রিম কোর্টের তরফে রথযাত্রা পালনের জন্য বেশ কয়েকটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল। নির্দেশিকা মতই এবছর রথযাত্রা পালন করা হচ্ছে।