‘ওমিক্রন প্রভাবিত দেশ থেকে বিমান বন্ধে, আমরা দেরি করছি কেন?’ মোদীকে প্রশ্ন কেজরিওয়ালের

‘ওমিক্রন প্রভাবিত দেশ থেকে বিমান বন্ধে, আমরা দেরি করছি কেন?’ মোদীকে প্রশ্ন কেজরিওয়ালের
‘ওমিক্রন প্রভাবিত দেশ থেকে বিমান বন্ধে, আমরা দেরি করছি কেন?’ মোদীকে প্রশ্ন কেজরিওয়ালের

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনা এখনও দেশ থেকে পুরোপুরি বিদায় নেয়নি। তার মধ্যেই স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার চেষ্টা করছে দশ। আগের থেকে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে করোনা সংক্রমণ এবং মৃত্যুর সংখ্যা। ক্রমশ কমছে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা।

এদিকে এই পরিস্থিতিতে ভয় ধরাচ্ছে করোনার নয়া প্রজাতি ওমিক্রন। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু দেশ ওমিক্রন প্রভাবিত দেশ থেকে, বিমান বন্ধ করে দিয়েছে। এর আগে গত রবিবারও ওমিক্রন প্রভাবিত দেশগুলির থেকে ভারতে বিমান আসা বন্ধ করতে অনুরোধ করেছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তবে এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনও সুস্পষ্ট সিদ্ধান্ত নেয়নি কেন্দ্র। তাই এবার ফের টুইট করেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

করোনার নয়া ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের হদিশ মেলে দক্ষিণ আফ্রিকায়। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ভাইরাস খুবই শক্তিশালী। বিশ্বের কাছে করোনার এই নতুন প্রজাতি যথেষ্ট ভয়ঙ্কর প্রমাণিত হতে পারে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের। ব্যাপকভাবে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পারতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এমনকী এক্ষেত্রে বিন্দুমাত্র অসতর্কতার ফলে কড়া মাশুল গুণতে হতে পারে বলেও সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এখনও পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকা, বাৎসোয়ানা-সহ কয়েকটি দেশে ওমিক্রন আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। ওমিক্রন নিয়ে গোটা বিশ্বকে সতর্ক থাকতে পরামর্শ দিয়েছে হু। এদিকে, ইতিমধ্যেই করোনার নয়া এই প্রজাতির মোকাবিলা নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল গত রবিবারই টুইটে ওমিক্রন প্রভাবিত দেশগুলি থেকে ভারতে আসা বিমান বন্ধের দাবি জানিয়েছিলেন। এব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তৎপর হতে আবেদন জানিয়ছিলেন কেজরিওয়াল। তবে এখনও পর্যন্ত এব্যাপারে কেন্দ্রের সদর্থক ভূমিকা চোখে না পড়ায় ফের টুইট করেন কেজরি।

দক্ষিণ আফ্রিকা, বাৎসোয়ানা-সহ কয়েকটি দেশে ওমিক্রন আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। ওমিক্রন নিয়ে গোটা বিশ্বকে সতর্ক থাকতে পরামর্শ দিয়েছে WHO। ইতিমধ্যেই করোনার নয়া এই প্রজাতির মোকাবিলা নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল গত রবিবারই টুইটে ওমিক্রন প্রভাবিত দেশগুলি থেকে ভারতে আসার বিমান বন্ধের দাবি জানিয়েছিলেন। এব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তৎপর হতে আবেদন জানিয়ছিলেন কেজরিওয়াল। তবে এখনও পর্যন্ত এব্যাপারে কেন্দ্রের সদর্থক ভূমিকা চোখে না পড়ায় ফের টুইট করেন কেজরির।

তিনি লেখেন, ‘বেশ কিছু দেশ ওমিক্রন প্রভাবিত দেশ থেকে বিমান বন্ধ করে দিয়েছে। আমরা কেন দেরি করছি? আমরা করোনার প্রথম ধাক্কার সময়েও আন্তর্জাতিক বিমান বন্ধ করতে দেরি করেছি। বেশিরভাগ বিমানই দিল্লিতে নামে। তাই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দিল্লি। অনুগ্রহ করে অবিলম্বে বিমান বন্ধ করুন।’

এদিন ফের একবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ওমিক্রন প্রভাবিত দেশ থেকে বিমান বন্ধের দাবি জানিয়ে কেজরিওয়াল টুইটে আরও লেখেন, ‘দেশ গত দেড় বছর ধরে করোনার বিরুদ্ধে কঠিন লড়াই করেছে। অনেক কষ্টে এবং লক্ষ-লক্ষ কোভিড-যোদ্ধার নিঃস্বার্থ সেবায় দেশ সুস্থ হয়ে উঠেছে। করোনার নয়া এই স্ট্রেনের কথা WHO-ও মেনে নিয়েছে। ভারতে ভাইরাসের নয়া এই প্রজাতির হামলা বন্ধে আমাদের যথাসাধ্য করা উচিত। ইউরোপীয় ইউনিয়ন-সহ বেশ কয়েকটি দেশ ওমিক্রন প্রভাবিত দেশে বেড়ানো বন্ধ রেখেছে। অবিলম্বে ওই দেশগুলি থেকে বিমান বন্ধের অনুরোধ করছি। এব্যাপারে বিন্দুমাত্র দেরি ক্ষতিকারক প্রমাণিত হতে পারে।’