করোনা ভ্যাকসিনের দামের ক্ষেত্রে কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে বৈষম্য কেন? কেন্দ্রকে প্রশ্ন সুপ্রিম কোর্টের

করোনা ভ্যাকসিনের দামের ক্ষেত্রে কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে বৈষম্য কেন? কেন্দ্রকে প্রশ্ন সুপ্রিম কোর্টের
করোনা ভ্যাকসিনের দামের ক্ষেত্রে কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে বৈষম্য কেন? কেন্দ্রকে প্রশ্ন সুপ্রিম কোর্টের

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনায় বিপর্যস্ত গোটা দেশ। দেশজুড়ে প্রতিদিন বহু মানুষ এই ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। দেশের এই মুহূর্তে যা পরিস্থিতি, তাতে জনসাধারণের প্রাণ বাঁচানোর মতো পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে, হস্তক্ষেপ করবে সুপ্রিম কোর্ট। এমনটাই বক্তব্য দেশের শীর্ষ আদালতের।

মঙ্গলবার কেন্দ্রের কাছে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় প্রশ্ন করেছেন যে, করোনা ভ্যাকসিনের দামের ক্ষেত্রে কেন ফারাক রাখা হয়েছে। কেন কেন্দ্র ও রাজ্য আলাদা দামে পাবে এই ভ্যাকসিন। এই বৈষম্যের কারণ কী? এই প্রশ্নের জবাব তলব করেছে সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রের কাছে। এর পাশাপাশি অবিলম্বে দেশে অক্সিজেনের ঘাটতি মেটাতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দেশের শীর্ষ আদালতের পক্ষ থেকে।

এদিন সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে বলা হয় যে, ‘দেশ এখন জাতীয় বিপর্যয়ের সম্মুখীন। আর এই সময়ে আদালত নীরব দর্শকের ভূমিকায় থাকতে পারে না। মানুষের জীবন বাঁচানোই আদালতের অগ্রাধিকারের মধ্যে পড়ে। আদালত যখনই মনে করবে, তখনই হস্তক্ষেপ করবে।’

এর পাশাপাশি অন্যদিকে, দিল্লি, কলকাতা, মাদ্রাজ হাইকোর্টের তীব্র ভর্ৎসনার মুখে পড়েছে দেশের নির্বাচন কমিশন। উল্লেখ্য, গতকালই মাদ্রাজ হাইকোর্ট কমিশনকে তীব্র ভর্ৎসনা করে বলেছে যে, ‘দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের জন্য দায়ী নির্বাচন কমিশন। কমিশনের আধিকারিকদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের হওয়া উচিত।’ এদিন এই পরিপ্রেক্ষিতেই সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে বলা হয় যে, ‘দেশের হাইকোর্টগুলির গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রয়েছে।’

মঙ্গলবার কেন্দ্রের সলিসিটর জেনারেলের কাছে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয় যে, ‘টিকাকরণই এই মুহূর্তে করোনা মোকাবিলার একমাত্র উপায়? জাতীয় বিপর্যয় চলছে, এই সংকট মোকাবিলায় কেন্দ্রের জাতীয় পরিকল্পনা কী?’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে দেশে ভ্যাকসিনের দামের ক্ষেত্রে কেন্দ্র এবং রাজ্যের মধ্যে দামের যে বৈষম্য, তা নিয়ে সরব হয়েছে বিরোধীরা। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী প্রমুখরা বারবার ভ্যাকসিনের দামে কেন্দ্র এবং রাজ্যের মধ্যে যে ফারাক, তা নিয়ে সরব হয়েছেন। এক দামে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা বলেছেন তাঁরা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সম্প্রতি সেরাম ইন্সস্টিউটের তরফে জানানো হয়েছে যে, কেন্দ্রকে তাঁরা ভ্যাকসিন দেবে ১৫০ টাকায়, আর রাজ্যগুলিকে সেই ভ্যাকসিন দেবে ৪০০ টাকায় এবং বেসরকারি হাসপাতালগুলি আরও বেশি দামে, ৬০০ টাকায়। দামের এই ফারাক কেন? এই প্রশ্নে প্রথম থেকেই সরব হয়েছে সমস্ত বিরোধী দল। পাশাপাশি দেশের আমজনতাও। আর এবার এই প্রশ্নের উত্তর চাইল কেন্দ্রের কাছে খোদ দেশের শীর্ষ আদালতও।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.