“জয় শ্রীরাম শুনলে কেন রেগে যান মুখ্যমন্ত্রী?” আজ মালদার সভায় এমনই প্রশ্ন তুললেন জে পি নাড্ডা

“জয় শ্রীরাম শুনলে কেন রেগে যান মুখ্যমন্ত্রী?” আজ মালদার সভায় এমনই প্রশ্ন তুললেন জে পি নাড্ডা
“জয় শ্রীরাম শুনলে কেন রেগে যান মুখ্যমন্ত্রী?” আজ মালদার সভায় এমনই প্রশ্ন তুললেন জে পি নাড্ডা / ছবি সৌজন্যে: Screenshot Facebook Live Video By BJP Offical

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ আবারও দুদিনের রাজ্য সফরে এলেন জে পি নাড্ডা। আজ মালদা সফর করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। প্রথমে মালদার ইংরেজবাজারে পৌঁছান তিনি। তারপর সেখান থেকে সেন্ট্রাল ইনস্টিটিউট অফ সাবট্রপিক্যাল হর্টিকালচারে যান। সেখানে আম চাষি সহ বিজ্ঞানীদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। তারপর সেখান থেকে পৌঁছান মালদার সাহাপুরে। সেখানে তিনি বক্তব্য রাখেন। তারপর কৃষকদের একটি প্রদর্শনী তে যোগ দেন তিনি। এরপর কৃষকদের সাথে গরম গরম খিচুড়ি খেয়ে মধ্যাহ্নভোজ সারেন। এমনকি খিচুড়ি খেয়ে হাতের ইশারাতেই জানালেন ভালো হয়েছে, তারপর খিচুড়ি খেয়ে সেই হাত মুছলেন নিজের ধুতিতেই।

মধ্যাহ্নভোজ শেষে শুরু হয় রোড শো। ইংরেজবাজারের ফোয়ার মোড় থেকে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মূর্তির পাদদেশ পর্যন্ত হবে রোড শো। উল্লেখ্য আজকের সফরে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার সাথে ছিলেন দিলীপ ঘোষ, দেবশ্রী চৌধুরী সহ বিজেপির একাধিক রাজ্য ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা। আজকের সভায় কৃষকদের লক্ষ্য করেই বক্তব্য রাখেন জে পি নাড্ডা। এমনকি আসন্ন ভোটে বিদায় নেবে মমতা সরকার, এই কথা বলে টা টা করার কথাও উল্লেখ করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা।

আজ মালদার সভায় তিনি বলেন পশ্চিমবঙ্গে পদ্ম ফুটলে উন্নতি অনিবার্য। এমন কি মুখ্যমন্ত্রী কে নিশানা করে বলেন, ভোটে বিদায় নেবে মমতা সরকার, টা টা করুন সবাই। এরপর বলেন রাজ্যের মানুষ তৈরি হয়ে গেছে মমতা সরকার কে বিদায় জানাতে। এরই সাথে মমতা সরকার কৃষকদের প্রতি বঞ্চনা করছেন সেকথাও তুলে ধরেন তিনি। এছাড়া আজ তিনি জয় শ্রীরাম শ্লোগান নিয়ে বলে, মমতা দি জয় শ্রীরাম বললে রেগে যাচ্ছেন কেন?

এরই সাথে বলেন বাংলায় পিসি-ভাইপোর জন্য বিরক্ত জনসাধারন, তাই তাঁদের বিদায় জানাতে তৈরি সকলে। এছাড়া তিনি বলেন, মোদি সরকার আত্মনির্ভরতার নামে ১ লক্ষ কোটি প্রদান করেছে। এছাড়া কৃষক সুরক্ষা অভিযানে প্রায় ৩৫ লক্ষ কৃষক যুক্ত রয়েছে। এখনও পর্যন্ত মোদী সরকার প্রায় ৩৩ হাজার গ্রামে পৌঁছে গেছে। এছাড়া রাজ্যে প্রায় ৬৬৫ কিমি হাইওয়ে তৈরির কাজ চলছে। এছাড়াও তিনি বলেন মোদী সরকার এলে রাজ্যে উন্নতি হবে।

আরো পড়ুনঃ   মঙ্গলবার রাজ্যে আসছেন যোগী আদিত্যনাথ