‘করোনা টিকার জোড়া ডোজ নিয়েও মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন, কেন?’ কেন্দ্রকে প্রশ্ন মমতার

‘করোনা টিকার জোড়া ডোজ নিয়েও মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন, কেন?’ কেন্দ্রকে প্রশ্ন মমতার
‘করোনা টিকার জোড়া ডোজ নিয়েও মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন, কেন?’ কেন্দ্রকে প্রশ্ন মমতার

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দুর্গাপুজোর পরই রাজ্যে ঊর্ধ্বমুখী করোনার সংক্রমণ। রবিবারই রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৯৮৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের। ক্রমশ বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাচ্ছে দেখে, ইতিমধ্যেই কিছু বিধিনিষেধ কড়াভাবে জারি করেছে রাজ্য সরকার। এদিকে এর মধ্যেই সোমবার উত্তরকন্যায় প্রশাসনিক বৈঠকে করোনা টিকা নিয়েই প্রশ্ন তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সম্প্রতি গোটা দেশের ১০০ কোটি মানুষকে করোনার প্রথম ডোজ দিয়ে দিয়েছে কেন্দ্র। তবে, টিকা নেওয়ার পরেও অনেকেই করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। বিশেষজ্ঞরা অবশ্য আগেই সতর্ক করেছিলেন যে, করোনার টিকা নিলেই যে করোনা হবে না, তা কিন্তু একেবারেই নয়। তেমন কোনও নিশ্চয়তা বিশেষজ্ঞরা দিতে পারেননি। কিন্তু তাও এদিন শিলিগুড়িতে মমতা বলেন, ‘দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পরেও করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন ২০ শতাংশ মানুষ। কেন এমন হচ্ছে? কেন ইমিউনিটি ৬ মাসের বেশি থাকছে না? কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে জানতে চাইবে রাজ্য।’

অন্যদিকে, এদিনে বৈঠকে একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। করোনার কারণে বহুদিন বন্ধ-স্কুল কলেজ। এবার তা খোলার ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, কালীপুজো মিটলেই ১৫ নভেম্বর থেকে স্কুল-কলেজ খোলা হবে। মুখ্যসচিবকে এবিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন আরও বলেন যে, ‘ছেলে-মেয়েদের এখনও ভ্যাকসিন হয়নি। তাই কোভিডবিধি মেনে ক্লাসে যেতে হবে। এ ব্যাপারে জোর দিতে হবে স্কুলগুলিকে।’ তবে, মুখ্যমন্ত্রীর এদিন মূল লক্ষ্য ছিল টিকাকরণের পরও করোনা আক্রান্তের বিষয়টি। এনিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘কোন ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনা হচ্ছে, কোভিশিল্ড নাকি কোভ্যাকসিন তা খোঁজ নেওয়া হবে।’