স্বপ্নে ধর্ষণ করেছেন তান্ত্রিক! আজব অভিযোগে পুলিশের দ্বারস্থ হলেন মহিলা

স্বপ্নে ধর্ষণ করেছেন তান্ত্রিক! আজব অভিযোগে পুলিশের দ্বারস্থ হলেন মহিলা / প্রতীকী ছবি
স্বপ্নে ধর্ষণ করেছেন তান্ত্রিক! আজব অভিযোগে পুলিশের দ্বারস্থ হলেন মহিলা / প্রতীকী ছবি

স্বপ্নের মধ্যে এসে ধর্ষণ করেছেন তান্ত্রিক! সম্প্রতি এমনই এক অদ্ভুত অভিযোগ এনে পুলিশের দারস্থ হলেন বিহারের এক মহিলা। তাঁর দাবী, স্বপ্নে এসে ওই তান্ত্রিক তাঁকে নিয়মিত বারংবার ধর্ষণ করেছেন। তাই পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগও জানিয়েছেন বিহারের গান্ধী ময়দানের বাসিন্দা ওই মহিলা।

মহিলার অভিযোগ, গত জানুয়ারিতে আচমকাই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে তাঁর ছেলে। সেই সময় তান্ত্রিক প্রশান্ত চতুর্বেদির কাছে এসেছিলেন তিনি। তান্ত্রিক মহিলাটিকে একটি মন্ত্র দিয়ে বলেন, সেটি জপ করলেই সেরে উঠবে ছেলে। কিন্তু শেষ পর্য‌ন্ত তা হয়নি। মাত্র ১৫ দিনের মাথায় মারা যায় মহিলার ছেলে।

এরপর ঘটনার ব্যাখ্যা চাইতে ফের তান্ত্রিকের বাড়ি যান মহিলাটি। সেই সময় তান্ত্রিক নাকি ওই মহিলাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ। মহিলার দাবী, তান্ত্রিক ধর্ষণ করতে এলে তাঁর ছেলেই সেবার বাঁচায় মহিলাকে। যদিও তান্ত্রিকের বিরুদ্ধে তখন পুলিশে কোনও অভিযোগ জানাননি মহিলাটি। তবে মহিলার দাবী, তারপর থেকেই স্বপ্নের মধ্যে তান্ত্রিকের আসা যাওয়া শুরু হয়। স্বপ্নেই নিয়মিত তাঁকে ধর্ষণ করতেন অভিযুক্ত তান্ত্রিক।

এই মর্মেই পুলিশের কাছে সম্প্রতি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মহিলাটি। পুলিশ প্রথমে কিছুটা হকচকিয়ে গেলেও, অভিযোগ অনুযায়ী ওই তান্ত্রিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় ডাকা হয়েছিল। তান্ত্রিকের বক্তব্য, ওই মহিলাকে তিনি চেনেন না। কোনও দিন দেখেননি। তাঁর বিরুদ্ধে উপযুক্ত প্রমাণ না থাকায় তাঁকে ছেড়ে দেয় পুলিশ। তবে আগে একটি বন্ডে সই করানো হয় তাঁকে৷