ব্রাজিল নয়, পৃথিবীর আদিমতম অজগরের জীবাশ্মের খোঁজ মিলল জার্মানিতে

ব্রাজিল নয়, পৃথিবীর আদিমতম অজগরের জীবাশ্মের খোঁজ মিলল জার্মানিতে
ব্রাজিল নয়, পৃথিবীর আদিমতম অজগরের জীবাশ্মের খোঁজ মিলল জার্মানিতে

‘অ-এ অজগর আসছে তেড়ে’- এ বাক্য তো ছেলেবেলায় আমরা সবাই পড়েছি। সেই পুচকে বয়স থেকেই অজগর নিয়ে আতঙ্ক তাই কম ছিল না। বিষহীন সাপ হলে কি হবে! এক হাঁ-তে আস্ত এক মানুষ গিলে নিতে পারে সে। কিন্তু কী ভাবে এই জীব জগতে আবির্ভাব ঘটল তার?

বিজ্ঞানীদের দাবী ছিল, দক্ষিণ গোলার্ধে প্রথম আবির্ভাব ঘটে অজগরের। এতদিন ধরে সেই ধারণাটিকে সঠিক মানা হয়েছিল। তবে সম্প্রতি আবিষ্কৃত একটি অজগরের জীবাশ্ম পুরোনো ধারণাটিকে দাঁড় করিয়েছে কাঠগড়ায়। জীবাশ্মটির বয়স আনুমানিক ৪ কোটি ৭০ লক্ষ বছর। আর তা উদ্ধার হয়েছে জার্মানির মেসেল পিট প্রত্নতাত্ত্বিক ক্ষেত্র থেকে। মনে করা হচ্ছে, এই জীবাশ্মটিই সবচেয়ে প্রাচীন অজগরের কোনও নমুনার।

প্রাপ্ত জীবাশ্মটিতে প্রায় ৭৫ টির বেশি বিশেষ বৈশিষ্ট্যও লক্ষ্য করা গিয়েছে। অন্যান্য অজগরের তুলনায় এর দৈর্ঘ্য অনেকটাই কম। মাত্র সাড়ে ৩ ফুট। কিন্তু শরীরে রয়েছে ২৭৫টি হাড়। এর আগে সবচেয়ে প্রাচীন যে জীবাশ্মের নমুনাটি পাওয়া গিয়েছিল সেটি উদ্ধার হয়েছিল ব্রাজিল থেকে। বয়স ছিল আনুমানিক ২ কোটি বছর। এছাড়াও দক্ষিণের অরণ্য অঞ্চলেই বেশি সন্ধান মেলে অজগরের৷ ফলে দক্ষিণ গোলার্ধই যে অজগিরের আবির্ভাব স্থল সে ধারণা প্রায় বদ্ধমূলই হয়ে গিয়েছিল। তবে নতুন আবিষ্কৃত জীবাশ্মটিই আবার নতুন করে ভাবতে বাধ্য করছে গবেষকদের।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.