অক্সিজেন না পেয়ে ২৫ রোগীর মৃত্যু! হাহাকার দিল্লির এই হাসপাতালে

অক্সিজেন না পেয়ে ২৫ রোগীর মৃত্যু! হাহাকার দিল্লির এই হাসপাতালে
অক্সিজেন না পেয়ে ২৫ রোগীর মৃত্যু! হাহাকার দিল্লির এই হাসপাতালে / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ দেশজুড়ে মারণ করোনা তার তাণ্ডবলীলা জারি রেখেছে। ঝড়ের গতিতে বাড়ছে সংক্রমণ। হাসপাতালে শয্যার অভাব। মিলছে না অক্সিজেন। স্বাস্থ্য ব্যবস্থা প্রায় ভেঙে পড়েছে। অবস্থা ক্রমশ আরও ভয়াবহ হচ্ছে। অক্সিজেন না পেয়ে, মৃত্যু হচ্ছে করোনা রোগীর।

এই অবস্থায় অক্সিজেন না পেয়ে, ফের ২৫ জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল। এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির গঙ্গারাম হাসপাতালে। দিল্লিতে এখন অক্সিজেনের জন্য হাহাকার দেখা দিয়েছে। রোগীদের বাঁচাতে হাতজোড় করে গত তিনদিন ধরে কাতর আবেদন জানিয়ে আসছেন এই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এবং চিকিৎসকরা। আজ সকালে তা পৌঁছায়। তবে, তার আগেই অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যু হল ২৫ জনের। এই হাসপাতালে এখনও ৫০০-র বেশি করোনা রোগী ভর্তি আছেন। তাঁদের মধ্যে আবার ৬০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

অক্সিজেন নেই, ঠিকমতো শ্বাস নিতে পারছিলেন না এঁরা। দীর্ঘনিঃশ্বাসও তাঁদের প্রাণ রক্ষা করতে পারল না শেষপর্যন্ত। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫ রোগীর মৃত্যু হল। মুখের কাছে ধরার মতো অক্সিজেনটুকুও ছিল না হাসপাতালে। অনেক আগেই হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল যতটুকু অক্সিজেন মজুত রয়েছে, তা দিয়ে শুধুমাত্র ২ ঘণ্টা চালান যাবে। তারপর আর কিছু করার নেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। তাও অক্সিজেন আসতে লেগে গেল অনেকটা সময়। হাসপাতালের ভয় এবং আশঙ্কাই সত্যি হল। অক্সিজেন এল তবে, চলে গেল ২৫ টি প্রাণ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই চিত্রটা দেশজুড়ে প্রায় একই। সর্বত্র অক্সিজেনের আকাল। যেমন-গতকাল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহদের টুইট করে হরিয়ানার ফর্টিস হাসপাতাল কাতর আর্জি জানিয়ে বলে, আর মাত্র ৪৫ মিনিটের অক্সিজেন পড়ে আছে। রোগীদের প্রাণ বাঁচানোর অবিলম্বে সাহায্য করুন। অন্যদিকে, অক্সিজেনের ঘাটতি নিয়ে বলতে বলতে ভেঙে পড়েন দিল্লিতে অবস্থিত শান্তি মুকুন্দ হাসপাতালের সিইও সুনীল সাগর। তিনি জানান, দুই ঘণ্টার মতো অক্সিজেন রয়েছে আমাদের এখানে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.