উত্তরপ্রদেশের আকাশে উড়ল পাকিস্তানের পতাকা! চারজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের

উত্তরপ্রদেশের আকাশে উড়ল পাকিস্তানের পতাকা! চারজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের
উত্তরপ্রদেশের আকাশে উড়ল পাকিস্তানের পতাকা! চারজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ বিস্ফোরক অভিযোগ! উত্তরপ্রদেশের আকাশে উড়ল পাকিস্তানের পতাকা। আর এই অভিযোগের ভিত্তিতে চার ব্যক্তির বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এদিকে, এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে গোরক্ষপুরের চৌরিচৌরায় দুই পরিবারের মোট চার জনের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের পতাকা উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে। এই চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগও ইতিমধ্যেই দায়ের হয়েছে। অভিযোগ, অভিযুক্তরা নিজেদের ছাদে পাক ঝাণ্ডা ওড়ান। যদিও গোরক্ষপুরের অ্যাডিশনাল এসপি মনোজ কুমার অবস্থি জানিয়েছেন, পাকিস্তানের পতাকা উত্তোলনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে অভিযুক্ত দুই পরিবার।

তাঁদের দাবি, ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছিল। সেটিকেই পাক পতাকা ভেবে ভুল করা হয়েছে। এদিকে, তাঁদের সেই ঝাণ্ডা ওড়ানোর দৃশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই ঘটে বিপত্তি। মুহূর্তের মধ্যেই শুরু হয়ে যায় বিতর্ক। পাশাপাশি খবর পৌঁছে যায় পুলিশের কাছেও। এরপর বিতর্ক থামাতে দ্রুত পতাকাটি নামিয়েও ফেলে দুই অভিযুক্ত পরিবার।

অন্যদিকে, দুই পরিবারের অভিযুক্ত চারজন তালিম, পাপ্পু, আশিক এবং তাঁর ভাই আসিফের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন ব্রাহ্মণ জনকল্যাণ সমিতির সভাপতি কল্যাণ পাণ্ডে। তিনি অভিযোগ করেছেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়ায় পাক পতাকা ওড়ানোর ছবি ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল। তা দেখেই স্থানীয় থানায় খবর দিই।’ উল্লেখ্য, বিষয়টিতে লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পরই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২৪-এ ধারায় মামলা রুজু করে চৌরিচৌরা থানার পুলিশ। তবে, অভিযোগ দায়ের হলেও, এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

জানা গিয়েছে, অভিযোগ পেয়ে, পুলিশ অভিযুক্তদের বাড়িতে তল্লাশি চালালেও, কোনও পাকিস্তানি পতাকা বার করতে পারেনি। পরিবর্তে পুলিশের হাতে চারটি ধর্মীয় পতাকা তুলে দেয় ওই দুই অভিযুক্ত পরিবার। যেগুলিকে পাকিস্তানের পতাকা ভেবে ভুল করা হয়েছিল বলে ওই দুই পরিবারের দাবি।

তবে পাকিস্তানের পতাকা তল্লাশিতে খুঁজে পাওয়া না গেলেও, বিষয়টিকে এত হালকাভাবে নেওয়া হচ্ছে না বলেই জানিয়েছেন গোরক্ষপুরের এসএসপি বিপিন তাডা। তিনি এও জানিয়েছেন যে, পুরো ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি তাঁদের হাতে যে চারটি পতাকা তুলে দেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে একটিতে ঊর্দু ভাষায় কিছু লেখা আছে। কী লেখা রয়েছে, তাও খতিয়ে দেখছে চৌরিচৌরা থানার পুলিশ।