ফের নদিয়ায় উদ্ধার হল এক বিশালাকার গোখরো সাপ, চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায়

ফের নদিয়ায় উদ্ধার হল এক বিশালাকার গোখরো সাপ, চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায়
ফের নদিয়ায় উদ্ধার হল এক বিশালাকার গোখরো সাপ, চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায় / ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ নদিয়াঃ মলয় দেঃ এবার নদিয়ায় ধান রাখা দোকান ঘর থেকে উদ্ধার হল একটি বিশালাকার বিষাক্ত গোখরো সাপ। ঘটনাটি ঘটেছে শান্তিপুর থানা এলাকার নৃসিংহপুর পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন এলাকায়। সোমবার বেলা দশটা নাগাদ ওই ধান রাখা দোকান ঘরে বিষাক্ত গোখরো সাপ টিকে লক্ষ্য করে দোকান ঘরের পাশে থাকা গৃহস্থ বাড়ির লোকজন। জানাজানি হতেই এলাকায় যথেষ্ট আতঙ্ক ছড়ায়।

তারপরই এলাকার লোকজন বনদপ্তর এ ফোন করলে তাতে কোনো সদুত্তর না মেলায় অবশেষে ক্ষোভে ফেটে পড়ে এলাকার স্থানীয় মানুষজন। বনদপ্তর এর অপর একটি নাম্বার থেকে দায়িত্বে থাকা এক অধিকর্তা বলেন হোয়াটসঅ্যাপে সাপের ছবি তুলে পাঠাতে! কিন্তু দোকান ঘরের শাটার খুলে ছবি তুলে নিজেদের বিপদ ডেকে আনতে রাজি নন তারা। এরপর শান্তিপুরের স্থানীয় বন্যপ্রাণী উদ্ধারকারী অনুপম সাহা কে ফোন করে এলাকার লোকজন। ঘটনা শুনতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় শান্তিপুরের বন্যপ্রাণী উদ্ধারকারী অনুপম সাহা এবং তার সহযোগী প্রদ্যুৎ মহলদার। এবং তারা ওই বিষাক্ত গোখরো সাপ থেকে উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে অনুপম সাহা জানান এই বিষাক্ত গোখরো সাপ টি যথেষ্ট বড় আকারের, এই সাপটিকে উদ্ধার না করলে যখন তখন বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারত। তবে বনদপ্তর এর গাফিলতি নিয়ে অনুপম সাহা জানান, আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। আমি যে কোন বন্যপ্রাণী উদ্ধারকাজে বনদপ্তরের নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করি। এটা আমার নেশা পেশা নয়, ভালোবেসে আমি এই কাজ করি। প্রসঙ্গত ওই উদ্ধার করা শাপটিকে শান্তিপুর বাহাদুরপুর পলাশ গাছি বনদপ্তর এর ফরেস্ট রেঞ্জার অফিসে তুলে দেওয়া হবে।

আরো পড়ুনঃ   মেদিনীপুর শহরে হাতির তাণ্ডব! চাঞ্চল্য এলাকায়