গৃহবন্দী ফিরহাদ! পুরসভার কাজ তদারকি করতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন নবান্নের

গৃহবন্দী ফিরহাদ! পুরসভার কাজ তদারকি করতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন নবান্নের
গৃহবন্দী ফিরহাদ! পুরসভার কাজ তদারকি করতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন নবান্নের

আদালতের নির্দেশে অন্তর্বর্তী জামিন পেয়ে আপাতত গৃহবন্দি কলকাতা পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। তাই বাড়িতে বসে ভার্চুয়াল মিটিং করলেও সশরীরে গিয়ে পৌরসভার কাজ তদারকি করতে পারছেন না তিনি। আর্থিক সেই কারণেই এবার পুরসভার কাজ তদারকি করার জন্য তিন সদস্যের কমিটি গঠন করল নবান্ন। এই তিন সদস্যের কমিটি পুরসভার যাবতীয় কাজ দেখভাল করে রিপোর্ট দেবে সরকারকে।

নবান্ন সূত্রে খবর, কলকাতা পুরসভার কাজ দেখভাল করার জন্য যে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে তাতে রয়েছেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, স্বরাষ্ট্র সচিব হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদী এবং নগর উন্নয়ন দপ্তরের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি খলিল আহমেদ। জানানো হয়েছে, এই তিন সদস্য পুরসভার যাবতীয় কাজে তদারকি করে সেই রিপোর্ট দেবে সরকার কে।

এমনিতেই কলকাতা পুরসভার বোর্ড ভেঙে যাওয়ায় সেখানে আইনি সমস্যা রয়েছে। মেয়র হিসেবে ফিরহাদ হাকিম যে সমস্ত কাজ করতে পারতেন প্রশাসক হিসেবে সেই সমস্ত কাজে আইনি জটিলতা রয়েছে। তার উপর এখন আবার আদালতের নির্দেশে গৃহবন্দি ফিরহাদ। সেই কারণে আর ঐ কলকাতা পুরসভা এগিয়ে হাতে-কলমে করণা মোকাবিলার সহ ঘূর্ণিঝড় পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে তদারকি করতে পারছেন না তিনি। সেই কারণেই এই তিন সদস্যের কমিটি কলকাতা পুরসভা করোনা কে নিয়ন্ত্রন করতে কেমন কাজ করছে বাকি ধরনের আরো উন্নয়ন প্রয়োজন সেই সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখবে। এর পরেই সেই রিপোর্ট জমা করবে সরকারকে।

প্রসঙ্গত, বিচারপতিদের দ্বন্দ্বের মধ্যেই অন্তর্বর্তী জামিন পে আপাতত গৃহবন্দি রয়েছেন ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং মদন মিত্র। যদিও ফিরহাদ হাকিম এবং শোভন চট্টোপাধ্যায় বাড়ি ফিরলেও সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং মদন মিত্রের শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় তারা এখনও এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এরমধ্যেই আগামীকাল নারদ মামলা নিয়ে পাঁচ বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চে শুনানি রয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে। এ পরিস্থিতিতে নবান্নের তরফে এহেন কমিটি গঠন করে অতি মারি পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার প্রচেষ্টা তা কার্যত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল।