রাত পোহালেই জঙ্গলমহলে নির্বাচন, ভোটের ঠিক আগের দিন ছত্রধরকে তলব এনআইএ-এর

রাত পোহালেই জঙ্গলমহলে নির্বাচন, ভোটের ঠিক আগের দিন ছত্রধরকে তলব এনআইএ-এর
রাত পোহালেই জঙ্গলমহলে নির্বাচন, ভোটের ঠিক আগের দিন ছত্রধরকে তলব এনআইএ-এর / ছবি সৌজন্যে- Facebook Post By @CHATRADHARMAHATA123

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা। রাত পোহালেই শুরু একুশের বিধানসভা নির্বাচন বাংলায়। এবারের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ৮ দফায়। আর প্রথম দফাতেই রয়েছে জঙ্গলমহলে ভোট।

এদিকে তার ঠিক আগে অর্থাৎ শুক্রবার ছত্রধর মাহাতোকে তলব করল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ (NIA)। ছত্রধর মাহাতোকে কলকাতার অফিসে বেলা ৩ টের মধ্যে হাজিরা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সূত্রে খবর, তদন্তে সহযোগিতা না করলে, যে কোনও মুহূর্তে গ্রেফতার করা হতে পারে ছত্রধর মাহাতোকে।

উল্লেখ্য, বছর দশ আগে জঙ্গলমহলে সিপিএম নেতা প্রবীর মাহাতোকে খুন এবং জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেসে নাশকতামূলক ঘটনায় অন্যতম মূল অভিযুক্ত এই ছত্রধর মাহাতো। সেই সময় ছত্রধর মাহাতো জনসাধারণ কমিটির নেতা ছিলেন। পরে এই ঘটনার তদন্তভার পায় এনআইএ। এরপর সম্প্রতি তদন্তে সক্রিয় হয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তদন্তভার পাওয়ার পর থেকে বেশ কয়েকবার ছত্রধর মাহাতোকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন এনআইএ-এর তদন্তকারী আধিকারিকরা। এরপরই তাঁকে নিজেদের হেফাজতে চেয়ে বিশেষ আদালতের দ্বারস্থ হয় এই তদন্তকারী সংস্থা।

এই আবেদনের ভিত্তিতে গত ২২ অক্টোবর বিশেষ আদালত রায় দেয় যে, যেহেতু এই মামলায় ঝাড়গ্রাম নিম্ন আদালত ছত্রধর মাহাতো-সহ অন্য অভিযুক্তদের জামিন মঞ্জুর করেছিল, তাই সেখানেই তাঁদের জামিন খারিজের জন্য কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে আবেদন করতে হবে। বিশেষ আদালতের এই রায়ের পরেই, ছত্রধর মাহাতোকে নিজেদের হেফাজতে চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় এনআইএ।

তবে, তখন কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন করলেও, এনআইএ-এর আবেদন খারিজ হয়ে যায়। যদিও পরে, আদালতের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে, ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত নির্দিষ্ট সময় অন্তর কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ তলব করতে পারবে ছত্রধরকে। সেই নির্দেশ অনুযায়ী, কয়েকবার ছত্রধরকে তলবও করা হয়েছিল। কিন্তু তিনি কোনও না কোনওভাবে হাজিরা এড়িয়ে গেছেন। কিন্তু এবার স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে যে, আজ অর্থাৎ ২৬ মার্চ বেলা তিনটের সময় তাঁকে হাজিরা দিতে হবে, তিনি হাজিরা না দিলে, গ্রেফতার করা হতে পারে।

বাংলায় একুশের নির্বাচনের আগে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলির তৎপরতা নিয়ে উত্তাল রাজ্য-রাজনীতি। এদিকে আগামীকালই জঙ্গলমহলের পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রামে নির্বাচন। তার আগে ছত্রধরকে তলব করা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন রাজনীতিবিদরা।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.