মেলেনি চিকিৎসকদের অনুমতি, প্রথমবার বিধানসভার ভোট দিতে পারলেন না বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য

মেলেনি চিকিৎসকদের অনুমতি, প্রথমবার বিধানসভার ভোট দিতে পারলেন না বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য
মেলেনি চিকিৎসকদের অনুমতি, প্রথমবার বিধানসভার ভোট দিতে পারলেন না বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য / ছবি সৌজন্যে- [email protected]

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ আগে কখনও এমনটা হয়নি। কিন্তু এই প্রথমবার নিজের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে পারলেন না বাংলার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। চিকিৎসকদের অনুমতি মেলেনি, বাইরে বেরিয়ে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার। তাই স্ত্রী এবং কন্যা ভোট দিলেও তিনি গৃহবন্দি হয়েই থাকলেন।

আজ রাজ্যের ৫ জেলার ৩৪ আসনে ভোট গ্রহণ চলছে। এর মধ্যে আজ কলকাতার ৪ টি আসনের মধ্যে বালিগঞ্জ আসন রয়েছে। এই আসনের ভোটার রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই তিনি শারীরিক অসুস্থতার কারণে বাড়িতেই বন্দী। বাড়িতেই তাঁর চিকিৎসা চলছে।

সূত্রের খবর, ভোট দানের ইচ্ছে থাকলেও, বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কারণে চিকিৎসকদের অনুমতি মেলেনি তাঁর বাইরে বেরিয়ে বুথে গিয়ে নিজের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করার। চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনেই এই সিদ্ধান্ত বলে আলিমুদ্দিন সুত্রেও তেমনটাই খবর।  সেই সঙ্গে এই প্রথমবার তিনি বিধানসভার নির্বাচনে ভোট দিতে পারছেন না।

এদিকে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অসুস্থ, তাই তিনি যাতে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন, সেজন্য আগেই কমিশনের কাছে আবেদন করেছিল তাঁর দল। কমিশনের কাছে আবেদন করা হয় যে, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে গিয়ে ভোট নেওয়ার। কিন্তু বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য-এর বয়স এখন আশির নিচে, তাই বাড়িতে গিয়ে ভোট গ্রহণ এক্ষেত্রে সম্ভব নয় বলেই জানায় নির্বাচন কমিশন।

এদিকে ক্রমশ রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি খারাপ থেকে আরও খারাপ হচ্ছে। ঝড়ের গতিতে বাড়ছে সংক্রমণ। তাই সবদিক বিবেচনা করে, ভোট দিতে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। তাই প্রবল ইচ্ছে থাকলেও, বর্তমান পরিস্থিতির দিকে তাকিয়ে ভোটদান থেকে নিজেকে বিরত করলেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.