এক ফোনেই বাড়িতে পৌঁছে যাবেন চিকিৎসক! সিউড়ির স্বেচ্ছাসেবী যুবকদের উদ্যোগ ‘চলমান ডাক্তারখানা’!

এক ফোনেই বাড়িতে পৌঁছে যাবেন চিকিৎসক! সিউড়ির স্বেচ্ছাসেবী যুবকদের উদ্যোগ 'চলমান ডাক্তারখানা'!
এক ফোনেই বাড়িতে পৌঁছে যাবেন চিকিৎসক! সিউড়ির স্বেচ্ছাসেবী যুবকদের উদ্যোগ 'চলমান ডাক্তারখানা'!

রাজ্য জুড়ে করোনার প্রকোপে নিতান্তই অসুবিধায় পড়েছেন সাধারণ মানুষ। করোনাকালীন পরিস্থিতিতে হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা করানো যেমন ঝুঁকির তেমনই সংক্রমণের ভয়ে অনেক প্রাইভেট চিকিৎসকও চিকিৎসা করতে রাজি হচ্ছেন না। ফলে বেশ সমস্যা পোহাতে হচ্ছে রাজ্যবাসীদের। এই অবস্থায় স্থানীয় মানুষদের সমস্যার সমাধানে এগিয়ে এল বীরভূম জেলার সিউড়ির বাসিন্দা ৩২ স্বেচ্ছাসেবী যুবক। এলাকাবাসীদের চিকিৎসার সুবিধার্ধে তাঁরা গড়ে তুলেছেন ‘চলমান ডাক্তারখানা’। যেখানে মাত্র এক ফোনেই বাড়িতে এসে হাজির হবে চিকিৎসক।

সিউড়ির উপহার ওয়েলফেয়ার সোসাইটি নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে শুরু হয়েছে ‘FEVER CLINIC ON WHEELS’-এর পরিষেবা। স্থানীয়দের ভাষায় তা-ই ‘চলমান ডাক্তারখানা’। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাটিকে সঙ্গ দিয়েছেন সিউড়ি সদর হাসপাতালের চিকিৎসক জিষ্ণু ভট্টাচার্য এবং রামপুরহাট মেডিকেল কলেজের চিকিৎসক প্রিয়ন্ত সারখেল৷ এই দুই চিকিৎসককে নিয়েই প্রাথমিকভাবে শুরু হয়েছে এই পরিষেবা। একটি টোটোতে চেপেই সিউড়ি জেলা জুড়ে চলছে পরিষেবা। এলাকা বাসীর আবেদন মতো একজন চিকিৎসক নিয়ে সেই টোটো পৌঁছে যাচ্ছে বাড়ির দুয়ারে।

টোটোর মধ্যে রয়েছে বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রায় সমস্ত সরঞ্জাম। অক্সিজেন সিলিন্ডার, অক্সিমিটার সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রী সব কিছুই মজুত রয়েছে সেখানে। টোটো করে রোগীর বাড়ি পৌছানোর পর চিকিৎসক সমস্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পরে ওষুধপত্র কেনার জন্য প্রেসক্রিপশন লিখে দিচ্ছেন। কোনও রোগীর অবস্থা সঙ্কটজনক হলে চিকিৎসক হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। যদি কারোর ওষুধ কিনতে যাওয়ার সমস্যা থাকে, তাহলে ওই সংস্থার সদস্যরাই ওষুধ কিনে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্বও নিয়েছেন।

এক ফোনেই বাড়িতে পৌঁছে যাবেন চিকিৎসক! সিউড়ির স্বেচ্ছাসেবী যুবকদের উদ্যোগ 'চলমান ডাক্তারখানা'!
এক ফোনেই বাড়িতে পৌঁছে যাবেন চিকিৎসক! সিউড়ির স্বেচ্ছাসেবী যুবকদের উদ্যোগ ‘চলমান ডাক্তারখানা’!

আপনি যদি সিউরিবাসী হন, আপনিও পেতে পারেন এই বিশেষ চিকিৎসার সুবিধা। এই সুবিধা পাওয়ার জন্য একদিন আগে ফোনে আবেদন করতে হবে। সংস্থার নির্দিষ্ট দুটি ফোন নম্বর 7098641877 এবং 8250448410 -এ ফোন করে নাম লেখাতে হবে। নাম লেখানোর সময় প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত। পরদিন চিকিৎসকের সময় মতো আবেদনকারীকে নির্দিষ্ট সময় দেওয়া হচ্ছে। তারপর বাড়িতে গিয়ে চিকিৎসা করা হচ্ছে। যেহেতু বর্তমানে চিকিৎসক কম রয়েছেন তাই প্রতিদিন ১০ জন করে রোগীকে পরিষেবা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে। তবে আগামী দিনে চিকিৎসকের সংখ্যা বাড়লে রোগী দেখার সংখ্যাও যে বাড়বে এ কথাও জানানো হয়েছে সংস্থার তরফে।