সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও পোস্ট করে ক্ষমা চাইলেন বিজেপি প্রার্থী শ্রাবন্তী! কিন্তু কেন? রইলো বিস্তারিত

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও পোস্ট করে ক্ষমা চাইলেন বিজেপি প্রার্থী শ্রাবন্তী! কিন্তু কেন? রইলো বিস্তারিত
সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও পোস্ট করে ক্ষমা চাইলেন বিজেপি প্রার্থী শ্রাবন্তী! কিন্তু কেন? রইলো বিস্তারিত / ছবি সৌজন্যে : Screengrab from Facebook Video Posted By @SrabantiChatterjeeBJP

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ রাজ্যে শুরু হয়েছে নির্বাচন যুদ্ধ। প্রথম দফায় পাঁচ জেলায় ভোট প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। বাকি হয়েছে আরও সাত দফা নির্বাচন। রাজ্যের শাসক দলে কে আধিপত্ত বিস্তার করবে তা নিয়ে চলছে রাজনৈতিক বিরোধ। রাজনৈতিক দলগুলি তাঁদের অবস্থান পাকাপক্ত করতে অনেক আগে থেকেই আসরে নেমে পড়েছে। তারসাথে গেরুয়া শিবিরও কয়েক দফায় প্রকাশ করেছে তাদের প্রার্থী তালিকা। আর এবারের প্রার্থী তালিকায় রয়েছে একঝাঁক তারকা। তারমধ্যে অন্যতম হলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী। বেহালা পশ্চিম এর বিজেপি প্রার্থী হলেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়৷

প্রসঙ্গত ইতিমধ্যেই প্রচারে নেমে পরেছেন শ্রাবন্তী। প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর স্থানীয় মন্দিরে পুজো দেন। আর তারপরই প্রচারে নামেন তিনি। তিনি জানান যে, তাঁর ইচ্ছা ছিল তিনি নিজের এলাকা বেহালাতে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াবেন। আর প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পরই তিনি তৃণমূলের শ্লোগান কে হাতিয়ার করে ‘বেহালা তার ঘরের মেয়েকে চায়’! শ্লোগান দিয়েই প্রচার শুরু করেন শ্রাবন্তী। তারপর দেওয়াল লিখনের কাজেও যোগ দেন। এবং বেহালার উন্নয়ন করবেন বলেও জানান। বিজেপি প্রার্থী হওয়ার পর থেকেই তিনি বেশ সক্রিয় ভাবেই প্রচারের কাজ করে চলেছেন। এছাড়া প্রচারের শেষে টিমকে নিয়ে ফুচকা খেতেও দেখা গেছে কিছুদিন আগে। তবে এবার তাঁকে দেখা গেল দোল উৎসবে।

উল্লেখ্য একদিন আগেই দোল উৎসব ছিল। আর দোল উৎসবের একটি অনুষ্ঠানে একসাথে দেখা যায় তৃণমূলের নেতা মদন মিত্র, দেবাংশু ভট্টাচার্য সহ বিজেপিতে যোগ দেওয়া পায়েল সরকার, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, তনুশ্রী চক্রবর্তীর মত তারকাদেরও। এমনকি মদন মিত্র, পায়েল সরকার, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় এবং তনুশ্রী চক্রবর্তীকে একই ফ্রেমে সেলফির ছবিও উঠে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর এই অনুষ্ঠানের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আসতেই ভাইরাল হয়ে উঠেছে। বিজেপি কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বিপক্ষ দলের নেতা-কর্মীদের সাথে বিজেপি প্রার্থীদের সেলফি নিয়েও জল্পনা তৈরি হয়েছে। আর সেকারণেই সোশ্যাল মিডিয়ায় হঠাত করেই ভিডিও পোস্ট করে ক্ষমা চাইলেন বিজেপি প্রার্থী শ্রাবন্তী। তিনি ক্যপশনে কী লিখেছেন, একনজরে দেখে নিন..

“নমস্কার আমি শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী বেহালা পশ্চিম বিধানসভার মনোনীত প্রার্থী। গত ২৮’শে মার্চ দোল উৎসব উপলক্ষ্যে সেদিন একটি মিডিয়া চ্যানেল-এর পক্ষ থেকে একটি অনুষ্ঠান আয়োজিত করা হয়েছিল যা কোনোভাবেই রাজনৈতিক অনুষ্ঠান ছিল না, যেখানে অন্য একটি দলের প্রার্থীরাও ছিলেন যা আমি ওখানে পৌঁছে জানতে পারি। যেহেতু দোল সবার তার কোনো আলাদা রাজনৈতিক রং নেই তাই গেছিলাম। আমার যাওয়ার জন্যে যদি আমার বেহালা পশ্চিম বিধানসভার কার্যকর্তারা এবং কর্মীরা মনোক্ষুন্ন হন তার জন্যে আমি ক্ষমাপ্রার্থী, আমি যেভাবে বেহালা পশ্চিমের পাশে আছি সেভাবেই থাকবো এবং আপনারা যেভাবে এতদিন ভালোবেসে এসেছেন চাইবো সেইভাবেই ভালোবেসে যাবেন এবং আশীর্বাদ করবেন যাতে আরও এগিয়ে যেতে পারি। সবাই সুস্থ থাকবেন ভালো থাকবেন।“

উল্লেখ্য গত ২৭ মার্চ থেকেই বাংলায় শুরু হয়েছে নির্বাচন। আর বাকি ৭ দফা নির্বাচন। এবার বিজেপির প্রার্থী তালিকায় রয়েছে বেশকিছু নতুন তারকা। তারকাদের যোগদান কতটা প্রভাব ফেলবে নির্বাচনে তা সময় বলবে। কে হবে বাংলার শাসক? কে হাসবে শেষ হাসি তা শুধুমাত্র নির্বাচনের ফলাফলই বলবে। শেষমেশ কে বাংলার শাসকের স্থান দখল করবে তা দেখার জন্য অপেক্ষায় রাজনৈতিক মহল সহ জনগন।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.