মুকুলের ফুল বদল! রাজনৈতিক গুরুকে ‘মীরজাফর’ বলে আক্রমণ করলেন বিজেপির এই নেতা

মুকুলের ফুল বদল! রাজনৈতিক গুরুকে ‘মীরজাফর’ বলে আক্রমণ করলেন বিজেপির এই নেতা
মুকুলের ফুল বদল! রাজনৈতিক গুরুকে ‘মীরজাফর’ বলে আক্রমণ করলেন বিজেপির এই নেতা

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ ইঙ্গিত আগেই ছিল। একের পর এক ঘটনাপ্রবাহ সেই দিকেই ইঙ্গিত করছিল। রাজনীতির হাওয়ায় ভাসছিল, মুকুলের ফুল বদলের কথা। আজ সেই ইঙ্গিত বাস্তবে পরিণত হল। ফের একবার ‘ঘর ওয়াপসি’ হল মুকুল রায়ের। ইতিমধ্যেই মুকুল রায় ছেলে শুভ্রাংশু রায়কে নিয়ে পৌঁছে গেছেন তৃণমূল ভবনে। চলছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক।

এদিকে মুকুল রায়ের বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফেরার প্রসঙ্গে মুখ খুললেন বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ। নিজের রাজনৈতিক গুরুকে ‘মীরজাফর’ বলে কটাক্ষ করতেও ছাড়লেন না। বললেন, ‘আমি ধর্মের সঙ্গে আছি।’ এদিন মহাভারতে কাহিনী মনে করিয়ে, যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ বলেন যে, ‘মহাভারতে অশ্বত্থমার জন্য দ্রোণাচার্য অধর্মকে সমর্থন করেছিল। আর দ্রোণাচার্যের মৃত্যু হয়েছিল তাঁর শিষ্য অর্জুনের হাতে। আজ আমি ধর্মের সঙ্গে থাকবো। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমার শ্রীকৃষ্ণ।’

এর পাশাপাশি মুকুল রায়কে আক্রমণ করে তিনি বলেন যে, ‘রাজনীতিতে আমরা মীরজাফরকে দেখছি। উনি যদি রাজনৈতিক চাণক্য হতেন, তাহলে ছেলেকে বীজপুর থেকে জেতাতে পারতেন। মীরজাফররা কখনো ভাল হতে পারে না। এই মীরজাফর বাংলার অনেক ক্ষতি করবে। তৃণমূল কংগ্রেস বাংলাকে যে অন্ধকারের দিকে নিয়ে যাচ্ছে এই ঘটনায় তা প্রমাণিত হল।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিজেপির সঙ্গে মুকুল রায়ের দূরত্ব যখন প্রায় পাকাপাকি তৈরি হয়ে গিয়েছে, ঠিক তখনই সল্টলেকে তাঁর বাড়িতে গিয়েছিলেন বিজেপির যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খাঁ। বেরিয়ে বলেছিলেন, ‘মুকুল রায়ের সঙ্গে আমার অনেক পুরনো সম্পর্ক। উনি আমার রাজনৈতিক গুরু। কাকিমার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে এসেছিলাম।’ মুকুলের পাশাপাশি তাঁকে নিয়েও জল্পনা ছড়িয়েছিল বঙ্গ রাজ্য-রাজনীতিতে। তবে, তৃণমূলে ফেরার প্রসঙ্গে সৌমিত্র খাঁ বলেছিলেন, ‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যেদিন বিজেপিতে আসবেন, সেদিন আমি তৃণমূলে যাব।’ সেদিনই স্পষ্ট হয় যে, তিনি দল ছাড়বেন না।

এদিকে এরপরই তিনি দিল্লি চলে যান। আর শুক্রবার যখন পুরনো দলে ফিরে আসছেন মুকুল, সে সময় দিল্লি থেকে সৌমিত্র বললেন, ‘মুকুল রায় কোনও চাণক্য নন, উনি মীরজাফর। এটা আজ প্রমাণিত হয়ে গেল।’ এর পাশাপাশি তিনি জানান যে, তিনি যেহেতু দিল্লিতে, তাই সেখানেই মাথা মুণ্ডন করবেন তিনি। এর আগেও অবশ্য মাথা মুণ্ডন করেছিলেন সৌমিত্র। এবার মুকুল-বিদায়ে ‘শুদ্ধ’ হবেন, এতদিন তাঁর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত সৌমিত্র।