ফের বেধড়ক মারধরে বিজেপি কর্মীর মৃত্যু, অভিযোগের আঙুল তৃণমূলের দিকে

পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলার শিকারপুরের ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) বুথ সম্পাদক কালচাঁদ কর্মকার বুধবার স্থানীয় একটি ক্লাবের সদস্যদের হাতে বেধড়ক মারধরে খেয়ে মারা গেছেন। কামাল বর্মণ নামে মৃতের পরিচিত একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিজেপি এবং কর্মকারের পরিবারের সদস্যরা দাবি, তৃণমূল কংগ্রেসের (টিএমসি) ক্যাডাররা খুন করেছে। তবে পুলিশ বলেছে, এটি দুটি স্থানীয় ক্লাবের মধ্যে বিরোধ হল রাজনৈতিক হত্যার ঘটনা নয়।

৫৫ বছর বয়সী কর্মকার দেখেন যে তার আত্মীয়কে স্থানীয় ক্লাবের সদস্যরা মারধর করছে তিনি সেখানে ঝাঁপিয়ে পড়লে তাঁকেও মারধর করে সদস্যরা। মারের চোটে অজ্ঞান হয়ে পড়েন তিনি। ওই অবস্থায় তুফানগঞ্জ হাসপাতালে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা মৃত ঘোষণা করেন।

কোচবিহারের এসপি কে কানন বলেছিলেন, “এই অঞ্চলের প্রথম দিকে একটি স্থানীয় ক্লাব ছিল। ক্লাবটি দু’বছর আগে ভাগ হয়ে যায়। এবং গত বছর থেকে, দুটি ক্লাব পৃথকভাবে কালীপুজোর আয়োজন করে আসছে। এই বছরও, ক্লাবটি পৃথকভাবে কালীপুজোর উদযাপন করেছে।”

কানন আরও বলেন, “আজ সকাল পর্যন্ত সবকিছু ঠিকঠাক ছিল। আজ সকালেই দুই ক্লাবের সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। তবে এটি রাজনৈতিক হত্যা নয়, দুটি ক্লাবের বিরোধ।”

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.