বিজেপির বিক্ষোভ কর্মসূচি! সপ্তাহের প্রথম দিনই শহরে ভোগান্তির আশঙ্কা

বিজেপির বিক্ষোভ কর্মসূচি! সপ্তাহের প্রথম দিনই শহরে ভোগান্তির আশঙ্কা
বিজেপির বিক্ষোভ কর্মসূচি! সপ্তাহের প্রথম দিনই শহরে ভোগান্তির আশঙ্কা

সোমবার বিজেপির বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অনুমতি দেয়নি লালবাজার। যার ফলে সপ্তাহের প্রথম দিনই শহর জুড়ে অশান্তির আশঙ্কা রয়েছে। আর তাতেই শহরবাসীর নাজেহাল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

পেট্রোল-ডিজেলে উত্‍পাদন শুল্ক কমিয়েছে কেন্দ্র। এরপরেই রাজ্যের তরফে ভ্যাট কমানোর দাবি তুলেছে বিজেপি। এবার এই দাবি বিক্ষোভ কর্মসূচি দেখাতে চলেছে গেরুয়া শিবির। জানা গিয়েছে, সোমবার বিক্ষোভ দেখানো হবে কলকাতায়। কিন্তু এখনও এই মিছিলের অনুমতি মেলেনি লালবাজারের তরফে। তবে অনুমতি না মিললেও বিজেপি মিছিল বের করবে বলেই জানিয়েছে।

এদিকে পুলিশ অনুমতি না দেওয়ায় রাজ্য অফিস থেকে কী ভাবে সেই মিছিল বের হবে, পুলিশ আদৌ এগোতে দেবে কি না সে প্রশ্ন ভাবাচ্ছে গেরুয়া নেতাদের। এর আগেও যখন অনুমতি মেলেনি মিছিলের তখন সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউয়ের উপরেই বসে পড়েছেন। এদিনও তেমনই ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা রয়েছে অনেকের। সেই কারণেই সপ্তাহের প্রথম কর্মব্যস্ত দিনে উত্তপ্ত হয়ে উঠতে পারে শহর কলকাতা।

এই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “কোভিড বিধি মেনে সোমবার কলকাতায় বিক্ষোভ মিছিল হবে। মানুষের স্বার্থে পথে নামবো। কোনও অনুমতির প্রয়োজন নেই। মিছিল হবেই।”

জানা গিয়েছে, দুপুর ১টায় মুরলীধর সেন লেনের রাজ্য বিজেপির সদর দফতর থেকে এই মিছিল বের হবে।এই মিছিলে  বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার-সহ বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ, বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এছাড়াও বেশ কিছু শীর্ষ স্থানীয় নেতা থাকতে পারেন।

পেট্রোল ডিজেলের লাগাতার মূল্যবৃদ্ধিতে যখন নাভিশ্বাস উঠেছিল দেশবাসীর তখন উৎসবের মরশুমে পেট্রপন্যের উপর থেকে শুল্ক কমিয়েছে কেন্দ্র। এরপরেই এই সিদ্ধান্ত কে সাধুবাদ জানিয়ে টুইট করেছিলেন একের পর এক বিজেপি নেতা। একইসঙ্গে রাজ্যের এবার ভ্যাট কমানো উচিত বলেও দাবি করেন তাঁরা। এই ভ্যাট কমানোর দাবিতেই আজ রাজ্য বিজেপি অফিস থেকে শুরু হবে মিছিল। এরপর ৯-১২ নভেম্বর জেলায় জেলায় বিক্ষোভ কর্মসূচি রয়েছে বিজেপির।