করোনা কালে বিয়ে! দূরত্ববিধি মেনে লাঠির ডগায় মালা ঝুলিয়ে মালাবদল করলেন বর-কনে!

করোনা কালে বিয়ে! দূরত্ববিধি মেনে লাঠির ডগায় মালা ঝুলিয়ে মালাবদল করলেন বর-কনে!
করোনা কালে বিয়ে! দূরত্ববিধি মেনে লাঠির ডগায় মালা ঝুলিয়ে মালাবদল করলেন বর-কনে!

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাতে কার্যত দিশেহারা ভারত। দেশে দিনের পর দিন চড়ছে করোনার গ্রাফ। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের হারও। এরই মধ্যে সারা দেশে হাসপাতাল বেড এবং অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। একদিকে হাসপাতালে নেই বেড। অন্যদিকে অক্সিজেনের যোগান নিয়ে দেশ জুড়ে এখন শুধুই হাহাকার। ইতিমধ্যেই তীব্র অক্সিজেন সংকটের মধ্যে পড়েছে একের পর এক রাজ্য। অক্সিজেনের অভাবে মারাও যাচ্ছেন দেশের একের পর এক মানুষ। চিতার আগুন যেন নিভছেই না…

সাম্প্রতিক এই কঠিন পরিস্থিতিতে মর্মান্তিক ঘটনাগুলির মধ্যেও মাঝেমধ্যে এমন কিছু ঘটনা উঠে আসে, যা বেশ মজার! দেখে হাসি চাপতে পারেন না সাধারণ মানুষও। সম্প্রতিই প্রকাশ্যে এল সেরকমই এক ঘটনা। যেখানে বিয়ের মঞ্চে দূরত্ববিধি মেনে লাঠিয়ে ডগায় মালা ঝুলিয়ে মালাবদল করলেন বর-কনে! যে ছবি এখন রীতিমতো ‘হিট’ নেটদুনিয়ায়।

জানা গিয়েছে, গত ৩০ এপ্রিল বেগুসরাইতে মাত্র ৫০ জন অতিথির উপস্থিতিতে এই বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। সেখানে মালা বদলের সময় পাত্র কীর্তেশ কুমার ও পাত্রী জ্যোতি কুমারী, দুজনের হাতেই ছিল লাঠি৷ তাতে মালা ঝুলিয়েই একে অপরের গলায় পরিয়ে দেন তাঁরা। দুজনেরই মুখে ছিল মাস্ক। সম্পূর্ণ দূরত্ববিধি মেনেই পুরো আচারটি পালন করেন দু’জনে। সদ্য বিবাহিত কীর্তেশ এও জানান, তাঁদের এই মালাবদলের অনুষ্ঠানটি সারা জীবন তাঁর স্মৃতিতে থাকবে ।

উল্লেখ্য, করোনার দাপটে এখন বিয়ে বা যে কোনও অনুষ্ঠানেই বিপুল জমায়েত নিষিদ্ধ। তাই নিয়মনীতি মেনে ছোট্ট অনুষ্ঠানের মাধ্যমেই বিয়ে সারছেন অনেকে। মানতে হচ্ছে কোভিড বিধিও। বজায় রাখতে হচ্ছে সামাজিক দূরত্ব। আর এই দূরত্ববিধি মানতে গিয়েই ওরকম এক মজার কাণ্ড ঘটালেন কীর্তেশ এবং জ্যোতি। যদিও তা দেখে মজা পেলেও অধিকাংশ নেটিজেনরাই এই উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়েছেন। এমনকি এই পরিস্থিতিতে এরকম উদ্যোগ যে ভালো বার্তাই দিচ্ছে, এমন কথাও বলেছেন অনেকে।