শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০২২

ব্যাঙ্ক কর্মচারীদের জন্য সুখবর! এবার কি মাসে ৮ দিন ছুটি পাবেন কর্মীরা?

মৌসুমী মোদক

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০৩:২১ পিএম | আপডেট: নভেম্বর ২৪, ২০২২, ০৩:৪০ পিএম

ব্যাঙ্ক কর্মচারীদের জন্য সুখবর! এবার কি মাসে ৮ দিন ছুটি পাবেন কর্মীরা?
ব্যাঙ্ক কর্মচারীদের জন্য সুখবর! এবার কি মাসে ৮ দিন ছুটি পাবেন কর্মীরা?

বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে ডিজিটাল বা অনলাইন পেমেন্টের দিকে জনসাধারণের ঝোঁক ক্রমশ বাড়ছে। ডিজিটাল পেমেন্টের ক্ষেত্রে বড় সুবিধা হল হাতে নগদ টাকা না থাকলেও চলে। ক্রেডিট কার্ড বা ডেবিট কার্ড অথবা নেট ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমেই রাস্তা-ঘাট বা বাজারে লেনদেন সম্ভব। তাই ইদানীং ডিজিটাল পেমেন্ট ক্রমশই বেড়ে চলেছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও ব্যাঙ্কের গুরুত্ব কিন্তু ফুরিয়ে যায়নি। কারণ টাকা জমা দেওয়া বা গচ্ছিত সঞ্চয় করে রাখা ইত্যাদি কাজের জন্য ব্যাঙ্কে দৌঁড়াতেই হয় সাধারণ মানুষকে। তবে এবার সেই কাজের জন্য হ্যাপা খানিক বাড়তে চলেছে।

এতদিন সাধারণত মাসে ৬ দিন ব্যাঙ্কের সরকারি ছুটির দিনগুলো বাদ দিয়ে যে কোনও দিন ব্যাঙ্ক সংক্রান্ত কাজকর্ম করতে পারতেন গ্রাহকরা। কিন্তু এবার তা ৮ দিন বাদ রেখে করতে হবে। কারণ এবার থেকে ব্যাঙ্কে মাসে ৬ দিন ছুটির পরিবর্তে ৮ দিন ছুটি দেওয়ার কথা চলছে। যেটুকু জানা যাচ্ছে, সিদ্ধান্ত নাকি প্রায় পাকা। আর তা যদি হয় তাহলে সাধারণ মানুষদের অসুবিধা হলেও ব্যাঙ্ক কর্মীদের জন্য তা সুখবর।

এমনিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা মাসে ৬ দিন ছুটি পেয়ে থাকেন। বর্তমানে যে নিয়ম রয়েছে তাতে মাসে প্রতি রবিবার ছাড়াও মাসের দ্বিতীয় এবং চতুর্থ শনিবার ব্যাংক বন্ধ থাকে। এবার এই তালিকায় আরও দুটি দিন সংযুক্ত হতে চলেছে। ব্যাঙ্ক কর্মীদের তরফ থেকে দীর্ঘদিন ধরেই প্রতিসপ্তাহে দু‍‍`দিন ছুটির দাবি তোলা হচ্ছে। এবার এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে কথা প্রায় পাকা হয়ে গিয়েছে বলেই জানা যাচ্ছে সূত্র মারফত।

একটি রিপোর্ট থেকে জানা যাচ্ছে ব্যাঙ্ক কর্মীদের এই দাবি-দাওয়া নীতিগতভাবে মেনে নেওয়া হয়েছে৷ সিদ্ধান্ত কার্যকর হলেই মাসে আট দিন ছুটি পাবেন ব্যাঙ্ক কর্মীরা। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এবার তারা মাসের প্রথম এবং তৃতীয় শনিবারও ছুটি পাবেন। তবে ব্যাংক কর্মীরা সপ্তাহে আট দিন ছুটি পেলেও কাজের সময়ের ক্ষেত্রে পরিষেবা থেকে ব্যাহত হবেন না গ্রাহকরা। কারণ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যা কার্যকর হবে তাতে সপ্তাহে পাঁচ দিন ব্যাংক কর্মীরা অতিরিক্ত সময় কাজ করবেন। এর ফলে মাসে যত ঘন্টা কাজ করা হয় তত ঘন্টায় কাজ করবেন কর্মীরা।

বর্তমানে ব্যাঙ্ক কর্মীদের অফিসে মোট সাত ঘন্টা থাকতে হয়। এর মধ্যে আধঘন্টা লাঞ্চ ব্রেক হিসাবে থাকে এবং মোট ৬ ঘন্টা ১৫ মিনিট গ্রাহকরা পরিষেবা পান। মাসে দুদিন অর্থাৎ প্রথম এবং তৃতীয় শনিবার ছুটি নেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে ব্যাংক কর্মীদের কাজের দিনগুলিতে অতিরিক্ত ৩০ মিনিট কাজ করতে হবে। ব্যাংক কর্মচারীদের সংগঠনের তরফ থেকে এই সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়া হয়েছে। গ্রাহকদের অসুবিধা বলতে শনিবার এবং রবিবার ব্যাংকের শাখায় গিয়ে কোন কাজ করতে পারবেন না।