‘শিশুদের স্কুলে পাঠানোর জন্য বাধ্য করতে পারি না’, স্কুল খোলার মামলা খারিজ করে পর্যবেক্ষণ শীর্ষ আদালতের

‘শিশুদের স্কুলে পাঠানোর জন্য বাধ্য করতে পারি না’, স্কুল খোলার মামলা খারিজ করে পর্যবেক্ষণ শীর্ষ আদালতের
‘শিশুদের স্কুলে পাঠানোর জন্য বাধ্য করতে পারি না’, স্কুল খোলার মামলা খারিজ করে পর্যবেক্ষণ শীর্ষ আদালতের

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ করোনা থেকে এখনও মুক্তি মেলেনি। এরই মধ্যে আবার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার সম্ভবনাও রয়েছে। এদিকে দেশজুড়ে করোনা মোকাবিলায় চলছে করোনার টিকাকরণের কাজ। এই পরিস্থিতিতে স্কুল খোলার সিদ্ধান্ত সরকারের উপরেই ছাড়ল দেশের শীর্ষ আদালত।

সোমবার এমনই রায় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। দেশব্যাপী করোনাকালে বন্ধ থাকা স্কুল-কলেজ খোলার দাবিতে দেশের শীর্ষ আদালতে আবেদন করা হয়েছিল। এদিন সেই আবেদন খারিজ করে দেয় সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় এবং বিভি নাগারত্নার বেঞ্চ।

বিচারপতিদের মন্তব্য, ‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত জটিল উদ্যোগ। সরকারই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিক। আমাদের এই বিষয়ে আইনি মতামত দেওয়া উচিত নয়।’ আদালতের পক্ষ থেকে এই মামলায় এই পর্যবেক্ষণ দিয়েই আবেদনকারীদের মামলা প্রত্যাহার করার পরামর্শ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। ডিভিশন বেঞ্চের পক্ষ থেকে বিচারপতি চন্দ্রচূড় বলেছেন, ‘আমি বলছি না এই আবেদন প্রচারের আলোয় আসার উদ্যোগ। কিন্তু শিশুদের এই বিষয়ে না টানাই ভালো। আমরা শিশুদের স্কুলে পাঠানোর জন্য বাধ্য করতে পারি না। তৃতীয় ঢেউ আসার একটা সম্ভাবনা রয়েছে। দেশব্যাপী টিকাকরণও চলছে।’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এদিন দেশের করোনার দৈনিক সংক্রমণ আরও কমেছে। সোমবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩০ হাজার ২৫৬ জন। গতকালের থেকে সংক্রমণ কমেছে। গতকাল দেশে করোনার দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩০ হাজার ৭৭৩ জন। পাশাপাশি দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৯৫ জনের। এই সংখ্যাটাও আগের দিনের থেকে কিছুটা কম। গতকাল দেশে করোনার দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ছিল, ৩০৯ জন। দেশে এখনও পর্যন্ত করোনার বলি ৪ লক্ষ ৪৫ হাজার ১৩৩ জন। আবার অনেকটা কমেছে অ্যাকটিভ কেসও। রবিবার যা ছিল ৩ লক্ষ ৩২ হাজারের বেশি, সোমবার তা নেমে এল ৩ লক্ষ ১৮ হাজারের কাছে।

তবে, কেরল চিন্তা চিন্তা এখনও জারি আছে। দেশের ৩০ হাজর ২৫৬ জন নতুন করোনা আক্রান্তের মধ্যে অর্ধেকর বেশিই কেরলের। কেরলের এই করোনা গ্রাফ তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা জাগাচ্ছে। সে রাজ্যে একদিনে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ হাজার ৬৫৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১৫২ জনের। তবে, সংক্রমণের লাগাম পরানো না গেলেও, করোনার ছোবল থেকে সুস্থ করে তোলা সম্ভব হচ্ছে অনেককেই।