বিজেপি কর্মীদের উপর হামলার প্রতিবাদ! কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ত্যাগ লকেটের

বিজেপি কর্মীদের উপর হামলার প্রতিবাদ! কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ত্যাগ লকেটের
বিজেপি কর্মীদের উপর হামলার প্রতিবাদ! কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ত্যাগ লকেটের

ক্ষমতায় আসার পর থেকেই জেলায় জেলায় বিজেপির কর্মীদের উপর হামলা হচ্ছে, এই অভিযোগ বারবার করা হয়েছে গেরুয়া শিবিরের তরফে। এবার এই হামলার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা ছাড়লেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি দিয়ে তিনি একথা জানিয়েছেন ইতিমধ্যেই। পাশাপশি আজ থেকেই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তারক্ষীদের আসতে বারণ করে দিয়েছেন তিনি।

হুগলি লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় এত দিন ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পেতেন। তাঁকে নিরাপত্তা দেওয়ার ভার ছিল সিআইএসএফ-এর উপর। লকেটের যুক্তি, জেলায় জেলায় বিজেপি কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছেন এই অবস্থায় তিনি নিজের স্বার্থে নিরাপত্তা চান না। লকেট চট্টোপাধ্যায় অমিত শাহকে চিঠি লেখার কথা জানিয়ে বলেন, “তিন দিন আগে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জিকে চিঠি দিয়ে কেন্দ্রীয় সুরক্ষা প্রত্যাহার করে নিতে অনুরোধ করেছিলাম। জানিয়েছিলাম, কর্মীদের যখন নিরাপত্তা নেই তখন আমি নিরাপত্তা দিয়ে কী করবো”?

এরপরেই অভিযোগ করে এই বিজেপি সাংসদ বলেন, “ভোটের ফলপ্রকাশ হওয়ার পর থেকেই রাজ্য জুড়ে বিজেপি কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছেন। আমার লোকসভা কেন্দ্রেও রোজ তৃণমূলের হামলার মুখে পড়তে হচ্ছে বিজেপি কর্মীদের। মহিলাদের ওপর নির্যাতন হচ্ছে। আমি একজন মহিলা জনপ্রতিনিধি হয়ে তাঁদের নিরাপত্তা দিতে পারছি না। তাই আমারও নিরাপত্তা নিয়ে চলার কোনও অধিকার নেই”।

একইসঙ্গে বিজেপি সাংসদ আক্ষেপ করে বলেন, “আমার আগে  কোনও নিরাপত্তারক্ষী ছিল না। ভোটের আগে ওয়াই ক্যাটেগরি দেওয়া হয়েছিল। ২ তারিখের পর এত অত্যাচার দেখে মনে হয়েছে,  যখন তাঁদের নিরাপত্তা দিতে পারছি না, তখন আমি নিরাপত্তা নিয়ে কী করব তাঁদের কাছে মুখ দেখাতে পারি না”।

অন্যদিকে, হুগলীতে শাসকদলের কর্মীদের হাতে আক্রান্ত হচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা। এই অভিযোগ জানিয়ে কয়েকদিন আগে চন্দননগর, চুঁচুড়া, ধনেখালি-সহ বেশ কিছু থানায় যান লকেট। সেখানে পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে দেখা করে দলীয় কর্মীদের উপরে হামলার ঘটনা নিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।