উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে বড় চমক! কংগ্রেসের হয়ে লড়বেন উন্নাও-এর নির্যাতিতার মা

উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে বড় চমক! কংগ্রেসের হয়ে লড়বেন উন্নাও-এর নির্যাতিতার মা
উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে বড় চমক! কংগ্রেসের হয়ে লড়বেন উন্নাও-এর নির্যাতিতার মা / প্রতীকী ছবি

বংনিউজ ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতেই রয়েছে উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন। কথায় আছে, দিল্লি আসতে গেলে উত্তরপ্রদেশ হয়েই আসতে হয়। পাশাপাশি কেন্দ্রের রাজনৈতিক ক্ষমতার ভরকেন্দ্র নির্ধারণের ক্ষেত্রেও তাই। আর সেই জন্যই আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে উত্তরপ্রদেশে নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে রয়েছে গোটা দেশ। ইতিমধ্যেই যোগী রাজ্যে ভোটের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। জোর কদমে রাজনৈতিক দলগুলির প্রচার চলছে। এবার নির্বাচনে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল কংগ্রেস। ভার্চুয়ালি প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করলেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। ১২৫ জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়। প্রার্থী হিসেবে ৪০ শতাংশ মহিলা এবং ৪০ শতাংশ যুবদের সুযোগ দিয়েছে কংগ্রেস এবারের বিধানসভা নির্বাচনে।

তবে, কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকায় সবথেকে বড় চমক হল, এবারের নির্বাচনে কংগ্রেসের পতাকা তলে লড়াই করবেন উন্নাও-এর নির্যাতিতার মা। তাঁকে শাহজাহানপুর থেকে প্রার্থী করেছে কংগ্রেস। তাই এবারে উত্তরপ্রদেশের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের হয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে নির্বাচনে লড়বেন আশাকর্মী পুনম পাণ্ডে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে দেশের খবরের শিরোনামে উঠে এসেছিল উন্নাও ধর্ষণকাণ্ড। ১৭ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে সরাসরি বিজেপির বিধায়ক বিধায়ক কুলদীপ সিং সেনগারের বিরুদ্ধে। তুঙ্গে ওঠে রাজনৈতিক তরজা। বিরোধীদের আক্রমণের মুখে পড়়ে চরম অস্বস্তিতে পড়ে উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ সরকার। অবশেষে বিধায়ক কুলদীপ সিং সেনগারকে দল থেকে বহিষ্কার করে বিজেপি। পাশাপাশি ২০১৯ সালে দোষী সাব্যস্ত হয় সেনগার। ধর্ষণ এবং নির্যাতিতার বাবাকে খুনের অভিযোগ তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা হয়।

এদিকে, উন্নাও-এর নির্যাতিতার মাকে কংগ্রেস প্রার্থী করার পরই টুইট করেছেন রাহুল গান্ধী। হাত্ শিবিরের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন তিনি টুইটে। লিখেছেন, ‘উন্নাও-তে যাঁর মেয়ের সঙ্গে বিজেপি অন্যায় করেছে, এবার তিনিই ন্যায়ের প্রতিমূর্তি হয়ে উঠবেন, লড়বেন এবং জিতবেনও।’ উল্লেখ্য, ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে উত্তরপ্রদেশে সাত দফায় ভোট শুরু। ফলাফল ঘোষণা ১০ মার্চ।