রাজনীতিরাজ্য

বিজেপির নবান্ন অভিযানের পাগড়ি বিতর্কে তুঙ্গে শাসক বিরোধী তরজা

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ বিজেপির নবান্ন অভিযানে বলবিন্দর সিং নামে এক শিখ যুবকের পাগড়ী খুলে নেওয়া নিয়ে তোলপাড় হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। এই ঘটনার তীব্র নিন্দায় মুখর হয়েছে বিভিন্ন মহল। পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আবেদন করেছেন। এর মধ্যেই রবিবার এই নিয়ে পাল্টা টুইট করেছে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের টুইটের জবাবে পাল্টা কটাক্ষ ছুঁড়ে দিয়েছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

এদিন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ এ টুইট করে জানানো হয়েছে, “একটি বিক্ষিপ্ত ঘটনা কে বিকৃত করে প্রচার করা হচ্ছে। এক ব্যক্তির কাছে বেআইনি অস্ত্র ছিল বলে পুলিশ আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিয়েছে। কেবলই বিক্ষিপ্ত ঘটনা”। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে আরও জানানো হয়, “বাংলা শিখ ভাই বোনেরা শান্তি ও সম্প্রীতির পরিবেশে আনন্দের সঙ্গে রয়েছে। শিখ সম্প্রদায়ের প্রতি পূর্ণ শ্রদ্ধা রয়েছে সরকারের। কিন্তু একটি রাজনৈতিক দল এই ঘটনাকে বিভেদের রাজনীতিতে সাম্প্রদায়িক রং লাগাতে চাইছে”।

এই টুইটের পর দিলীপবাবু জানান, “কোনও সুরক্ষা কর্মীকে এভাবে গ্রেফতার করা যায় না। এখানকার লাইসেন্স না থাকলেও তার কাছে লাইসেন্স ছিল। তাঁর কাছে তাঁর বেআইনি অস্ত্র ছিল না।তাকে যেভাবে প্রকাশ্যে চুল ধরে টেনে নিয়ে গিয়েছে পুলিশ সেটা সারা দেশের মানুষ দেখেছে। সবাই ছি: চিৎকার করছে।যেভাবে এক সুরক্ষাকর্মীর সঙ্গে ব্যবহার করা হয়েছে তা নিন্দনীয়। এখন ট্যুইট করে দোষ ঢাকা যাবে না”।

এদিকে রোববার সকালেই দিল্লি থেকে কলকাতায় পৌঁছেছে দিল্লির শিক প্রতিনিধিদল। তারা হাওড়া থানায় গিয়ে অভিযোগ জানিয়েছেন এরপর রাজভবনে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরের সঙ্গেও তাদের দেখা করেন তাঁরা।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.

Back to top button