শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

প্রকাশ্যে রাস্তায় স্ত্রীকে নৃশংসভাবে কোপাল স্বামী! ৭ কোপে মৃত্যু মহিলার, গ্রেফতার অভিযুক্ত

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৪, ২০২৩, ০১:২৭ পিএম | আপডেট: জানুয়ারি ২৪, ২০২৩, ০১:৩৫ পিএম

প্রকাশ্যে রাস্তায় স্ত্রীকে নৃশংসভাবে কোপাল স্বামী! ৭ কোপে মৃত্যু মহিলার, গ্রেফতার অভিযুক্ত
প্রকাশ্যে রাস্তায় স্ত্রীকে নৃশংসভাবে কোপাল স্বামী! ৭ কোপে মৃত্যু মহিলার, গ্রেফতার অভিযুক্ত

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ প্রকাশ্যে ব্যস্ততম রাস্তায় একের পর এক ছুরির কোপ স্ত্রীর উপর। একবার নয়, পরপর ৭ টি কোপ বসাল স্বামী তাঁর স্ত্রীর শরীরে। আর সেই ঘটনা সম্পূর্ণ দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখল পথচলতি মানুষ। একজনও ওই মহিলাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলেন না। এরপর ওই মহিলা রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়লে, সেখান থেকে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত স্বামী।

এদিকে, হামলা চালানোর পর ঘটনাস্থল অভিযুক্ত ব্যক্তি পালিয়ে গেলে স্থানীয়রা ওই গুরুতর আহত মহিলাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু শেষরক্ষা করা যায়নি। জীবনে সাতপাক ঘুরে যার সুখে-দুঃখে সঙ্গী হওয়ার শপথ নিয়েছিলেন অগ্নিকে সাক্ষী রেখে, সেই স্বামীর ৭ কোপেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পরলেন ওই মহিলা। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণের রাজ্য তামিলনাড়ুর ভেলোর জেলার ব্যস্ততম রাস্তায়। তবে, ওই ব্যক্তি পালিয়ে পার পায়নি। পরে পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে।  

পুলিশ জানিয়েছে যে, মৃত মহিলার নাম পুনিথা। ভেলোর জেলার অম্বুর থানা এলাকার বাসিন্দা পুনিথা বাড়ির অদূরে একটি বেসরকারি জুতোর কোম্পানিতে চাকরি করতেন। সোমবার কাজ থেকে বাড়ি ফেরার পথেই পুনিথার স্বামী জয়শঙ্কর ছুরি নিয়ে তাঁর উপরে হামলা চালায়। সিসিটিভি ফুটেজের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত জয়শঙ্করকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঠিক কী দেখা গিয়েছে সিসিটিভি ফুটেজে? সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, পুনিথা ব্যস্ততম রাস্তা দিয়ে কাজ থেকে হেঁটে বাড়ি ফিরছিলেন। আচমকাই পিছন থেকে ছুরি নিয়ে তাঁর উপর চড়াও হয় এক ব্যক্তি। মহিলা কিছু বুঝে ওঠার আগেই তাঁর শরীরে একের পর এক কোপ বসাতে থাকে ওই ব্যক্তি। তারপর ওই মহিলা বুঝতে পারেন, ওই হামলাকারী ব্যক্তি আর কেউ নয়, তাঁর স্বামী। প্রাণে বাঁচতে প্রাণপণে স্বামীকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু, সফল হননি। স্বামীর ৭ কোপে রাস্তায় লুটিয়ে পড়েন পুনিথা কিছুক্ষণের মধ্যেই। তারপর হেঁটে ওই রাস্তা দিয়ে চলে যায় জয়শঙ্কর।

পুনিথা রাস্তায় লুটিয়ে পড়লে, পথচারীরা তাঁকে উদ্ধার করে অম্বুর হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে ওই হাসপাতালে চিকিৎসা চলাকালীনই তাঁর মৃত্যু হয়। জানা গিয়েছে, ছুরির কোপে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের ফলেই পুনিথার মৃত্যু হল বলে হাসপাতালের চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন। এরপরই সিসিটিভি ফুটেজের ভিত্তিতে অভিযুক্ত জয়শঙ্করকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।