শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

প্রেমিকের সঙ্গে মিলে নিজের একরত্তি মেয়েকে খুন! ট্রেন থেকে দেহ ছুঁড়ে ফেলল মা, গ্রেফতার উভয়েই

আত্রেয়ী সেন

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২৩, ০৩:৪০ পিএম | আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২৩, ০৩:৪৫ পিএম

প্রেমিকের সঙ্গে মিলে নিজের একরত্তি মেয়েকে খুন! ট্রেন থেকে দেহ ছুঁড়ে ফেলল মা, গ্রেফতার উভয়েই
প্রেমিকের সঙ্গে মিলে নিজের একরত্তি মেয়েকে খুন! ট্রেন থেকে দেহ ছুঁড়ে ফেলল মা, গ্রেফতার উভয়েই

বংনিউজ২৪x৭ ডিজিটাল ডেস্কঃ মা নিজের সন্তানের সঙ্গে যে এমনটা করতে পারে, ভাবাই যায় না। প্রেমিকের সঙ্গে হাত মিলিয়ে নিজের ৩ বছরের একরত্তি মেয়েকে খুন করলেন এক মহিলা। শুধু প্রাণে মারাই নয়, খুন করে দেহ লোপাটের চেষ্টাও করেন তাঁরা। মেয়েকে খুন করে, মৃতদেহ চাদরে মুড়ে চলন্ত ট্রেন থেকে ছুঁড়ে ফেলেন তাঁরা। কিন্তু তাঁদের এই ঘৃণ্য অপরাধ চাপা থাকল না। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের শ্রীগঙ্গানগর এলাকায়। পুলিশ বিষয়টিতে তদন্ত শুরু করেছে ইতিমধ্যেই।

জানা গিয়েছে, এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত ২ জনকে শনাক্ত করেছে পুলিশ, তাঁদের গ্রেফতারও করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে অভিযুক্ত মায়ের নাম সুনীতা এবং তাঁর প্রেমিকের নাম সানি ওরফে মালটা। তাঁরা দুজনেই একসঙ্গে থাকেন। সুনীতার মোট ৫ সন্তান। তার মধ্যে ৩ সন্তান সুনীতার স্বামীর সঙ্গে থাকে। বাকি ২ জন শাস্ত্রীনগরে তাঁর এবং সানির সঙ্গে থাকত।

পুলিশ সূত্রে আরও জানা গিয়েছে যে, গত সোমবারই সুনীতা নিজের তিন বছর বয়সী মেয়ে কিরণকে শ্বাসরোধ করে খুন করেন। এরপর প্রেমিক সানির সাহায্যে মেয়ের মৃতদেহ চাদরে মুড়ে দেহ লোপাট করার জন্য বের হন। সঙ্গে ছিলেন প্রেমিক সানিও। তাঁরা প্রথমে শ্রীগঙ্গানগর রেলওয়ে স্টেশনে যান।

জানা গিয়েছে, সকাল ৬ টা ১০ নাগাদ তাঁরা একটি ট্রেনে ওঠেন। সঙ্গে ছিল মৃত মেয়ের দেহ। পুলিশ সূত্রে খবর, ফাতুহি রেলওয়ে স্টেশনে ঢোকার আগে এটি ক্য়ানালের উপর ব্রিজে ট্রেনটি পৌঁছতেই, তাঁরা সঙ্গে থাকা চাদরের ঝুলি ছুঁড়ে ফেলে দেন। কিন্তু ক্য়ানালে মেয়ের মৃতদেহ ফেলতে চাইলেও, তা রেলওয়ের ট্র্যাকে আটকে যায়। মঙ্গলবার সকালে তা উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর মৃতদের শনাক্ত করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সুনীতাকে ডেকে পাঠানো হয়। জিজ্ঞাসাবাদের সময় সুনীতা ভেঙে পড়েন এবং নিজের মেয়েকে খুন করার বিষয়টি স্বীকার করে নেন। সঙ্গে সঙ্গে সুনীতা ও তাঁর প্রেমিক সানিকে গ্রেফতার করে শ্রীগঙ্গানগর থানার পুলিশ।