ভোট পর্ব মিটতেই কালনায় সাতসকালে উদ্ধার বিজেপি কর্মীর দেহ

ভোট পর্ব মিটতেই কালনায় সাতসকালে উদ্ধার বিজেপি কর্মীর দেহ
ভোট পর্ব মিটতেই কালনায় সাতসকালে উদ্ধার বিজেপি কর্মীর দেহ/প্রতীকী ছবি

ফের বিজেপি কর্মীর রহস্য মৃত্যু। সোমবার সকালে পূর্ব বর্ধমানের কালনায় এক বিজেপি কর্মীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। মৃতের পরিবারের অভিযোগ তৃণমূলের কিছু দুষ্কৃতী এই কাজ করেছে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। পাল্টা দাবি আত্মঘাতী হয়েছেন ওই বিজেপি কর্মী অখিল প্রামানিক।

স্থানীয় সূত্রে খবর, সোমবার সকালবেলা বিজেপি কর্মী অখিল প্রামাণিকের বাড়ির পাশের বাগান থেকে উদ্ধার হয় তার ঝুলন্ত দেহ। অখিল বাবুর পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, রবিবার গভীর রাতে বাড়ী থেকে বেরিয়ে ছিলেন তিনি। কিন্তু সকাল হতেও বাড়ি না ফেরায় তাকে খুঁজতে বের হন তার স্ত্রী ও ভাই। এরপর এই বাড়ির পাশের বাগানে থাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান তারা।

পরিবারের অভিযোগ, গত কয়েক মাস ধরেই অখিল বাবু এবং তার ভাইকে হুমকি দিচ্ছিলেন এলাকার তৃনমূলের কর্মী-সমর্থকরা। তাই তাদের দাবি অখিল বাবু কে খুন করে তার দেহ ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় স্থানীয় বিজেপি নেতা সুশান্ত পান্ডে সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছে। পূর্ব বর্ধমানের কালনার বিজেপি প্রার্থী বিশ্বজিৎ কুন্ডুও ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন। তিনি জানিয়েছেন মৃতের পরিবারের যাবতীয় দায়িত্ব নেবে তাদের দল। অন্যদিকে এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করে কালনা ২ নম্বর ব্লক তৃণমূল সভাপতি প্রণব রায় জানান, ওই ব্যক্তি দীর্ঘদিন থেকেই শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। সেই যন্ত্রণা থেকেই আত্মঘাতী হয়েছেন তিনি। দেহের ময়নাতদন্ত হলেই পুরো বিষয়টি সামনে আসবে বলেও জানান প্রণব বাবু।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.