পরিচালক রাম কমল মুখোপাধ্যায়ের ‘রিকশাওয়ালা’র বিদেশ পাড়ি

পরিচালক রাম কমল মুখোপাধ্যায়ের ‘রিকশাওয়ালা’র বিদেশ পাড়ি
পরিচালক রাম কমল মুখোপাধ্যায়ের ‘রিকশাওয়ালা’র বিদেশ পাড়ি

বংনিউজ২৪x৭ ডেস্কঃ পরিচালক রাম কমল মুখোপাধ্যায় পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘সিজন গ্রিটিংস’ বিশ্বব্যাপী চলচ্চিত্র সমালোচক এবং দর্শকদের মন জয় করার পর, এখন লেখক তথা পরিচালক রাম কমল মুখোপাধ্যায় তাঁর তৃতীয় ছবি ‘রিকশাওয়ালা’র জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এই চলচ্চিত্রটি স্পেনের মাদ্রিদে মর্যাদাপূর্ণ ইমেজিনইন্ডিয়া আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে নির্বাচিত হয়েছে এবং নভেম্বরে প্রদর্শিত হবে। অন্যদিকে চলতি মাসে, মেলবোর্নের একাদশ আন্তর্জাতিক ভারতীয় চলচ্চিত্র উৎসবেও নির্বাচিত হয়েছে।

এই চলচ্চিত্রের মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলিউড অভিনেতা অবিনাশ দ্বিবেদী ও সংগীতা সিনহা। ছবিটি ইতোমধ্যে ১৩ তম অযোধ্যা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সেরা অভিনেতা এবং সেরা পরিচালকের পুরস্কার পেয়েছে। উল্লেখ্য, মেলবোর্ন আন্তর্জাতিক ভারতীয় চলচ্চিত্র উৎসব বিশ্বব্যাপী অন্যতম মর্যাদাপূর্ণ উৎসব হিসেবে পরিচিত। এই চলচিত্র উৎসবের কিউরেটর উমা দা কুন্না তাঁর বিবৃতিতে জানিয়েছেন যে, ‘রাম কমল পরিচালিত চলচ্চিত্রটিতে কলকাতার প্রেক্ষাপটে এমন এক অভিবাসীর জীবনের ছবি চিত্রায়িত হয়েছে, যার জীবন ঘিরে রয়েছে শুধুই কষ্ট, কঠিন লড়াই, বৈষম্য আর অভাবের কাহিনি’।

চলচ্চিত্র রিকশাওয়ালার শ্যুটিং- এর একটি মুহূর্ত বোঝাচ্ছেন পরিচালক
চলচ্চিত্র রিকশাওয়ালার শ্যুটিং- এর একটি মুহূর্ত বোঝাচ্ছেন পরিচালক

এই বছর মেলবোর্ন আন্তর্জাতিক ভারতীয় চলচ্চিত্র উৎসব করোনা অতিমারির কারণে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ২৩ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত মেলবোর্ন আন্তর্জাতিক ভারতীয় চলচ্চিত্র উৎসবে হবে। এর মধ্যেই ছবিটি প্রদর্শিত হবে। এই চলচিত্র উৎসবের পরিচালক মিতু ভৌমিক ল্যাঙ্গা জানিয়েছেন যে, ‘আমরা রাম কমল মুখোপাধ্যায় পরিচালিত রিকশাওয়ালা এবং সিজন গ্রিটিংস দুটি ছবিই দেখাতে পারার কারণে আনন্দিত। তিনি একজন সংবেদনশীল চলচ্চিত্র নির্মাতা, যিনি তাঁর প্রতিটি চলচ্চিত্রকে যত্ন সহকারে নির্মাণ করে থাকেন।’ এই চলচ্চিত্র উৎসবে সারা ভারত এবং উপমহাদেশের ২২ টিরও বেশি ভাষায় ৬০ টিরও বেশি চলচ্চিত্র দেখানো হবে।

চলচ্চিত্র রিকশাওয়ালা
চলচ্চিত্র রিকশাওয়ালা

অরিত্র দাশ, গৌরব দাগা এবং শৈলেন্দ্র ককুমার প্রযোজিত ছবিটি ভারতে বেকারত্ব এবং অভিবাসী নিপীড়নের সমসাময়িক বিষয়গুলির উপর আলোকপাত করেছে। পরিচালক রাম কমল মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ‘আমি খুশি যে আমাদের এই ছবিটি মেলবোর্ন এবং মাদ্রিদে মর্যাদাপূর্ণ চলচ্চিত্র উৎসবগুলির জন্য নির্বাচিত হয়েছে। আমি একটি সহজ গল্প বলতে চাইছিলাম এবং যেহেতু আমি আমার শৈশব উত্তর কলকাতায় কাটিয়েছি, তাই আমি রিকশা চালকদের জীবনকাহিনি তুলে ধরতে চেয়েছিলাম।’ ছবিটিতে সংগীত পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন নীরঞ্জন সাহা এবং সম্পাদনা করেছেন প্রণয় দাশগুপ্ত।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই চলচ্চিত্র, প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক বিমল রায়-এর ছবি ‘দো বিঘা জমিন’-এর বলরাজ সাহানি, যিনি চলচ্চিত্রে একজন রিকশাওয়ালা চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন এবং অবশ্যই রোনাল্ড জোফের ‘সিটি অফ জয়’-এর রিকশাওয়ালার চরিত্রে ওম পুরীর প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপন। কলকাতার শত বছরের পুরনো একটি ঐতিহ্যবাহী যান, যেটিকে সুপ্রিম কোর্ট অবৈধ ঘোষণা করেছে, তা শহরের লেন ধরে তার শেষ নিঃশ্বাস ফেলছে। এই ছবিতে এই দুই চাকার মধ্যে দিয়ে মানুষের প্রেম, ব্যথা, মানববন্ধন যা এই শহরটিকে বাঁচিয়ে রেখেছে, তার কথাই ব্যক্ত হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.