কিশোরের পোস্ট মর্টেমের জন্য ঘুষ চাইলেন চিকিৎসক, ফেরত দিলেন আধখানা সেলাই করা দেহ

কিশোরের পোস্ট মর্টেমের জন্য ঘুষ চাইলেন চিকিৎসক, ফেরত দিলেন আধখানা সেলাই করা দেহ
কিশোরের পোস্ট মর্টেমের জন্য ঘুষ চাইলেন চিকিৎসক, ফেরত দিলেন আধখানা সেলাই করা দেহ

বংনিউজ২৪X৭ ডেস্কঃ সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকের এ এক অন্যরূপ। করোনার আবহেও নির্মম ব্যবহার করলেন রোগীর পরিবারের লোকজনদের সঙ্গে। জানালেন ৮,৭০০ টাকা দিলে তবেই পোস্ট মর্টেম করা হবে ওই কিশোরের। এমনকী, পোস্ট মর্টেমের পর দেহ মুড়ে দেওয়ার জন্য চাওয়া হয় আরও ৮০০ টাকা।

ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বাগপথ জেলার নিরপুরা গ্রামে। কিশোরের বাবা সোম দত্ত শর্মা বেকার। তিনি যেটুকু টাকা জমিয়েছিলেন, সেই টাকা দিয়ে লকডাউনে তার সংসার চলছিল। ছেলের চিকিৎসাও চলছিল। গ্রামবাসীদের সাহায্যে তিনি ৫,৫০০ টাকা জোগাড় করতে পারেন। তিনি হাসপাতালে পোস্ট মর্টেম করে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

শেষ কৃত্যের জন্যে মৃতদেহ দিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রাজি হয়। নিরপুরা গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান জানিয়েছেন, পোস্ট মর্টেম হওয়ার পর দেহ মুড়ে দেওয়ার জন্য ৮০০ টাকা চেয়েছিল। টাকা দেওয়া হবে না বলায় তারা ওই কিশোরের আধখানা সেলাই করা দেহ ফেরত দেয়। পঞ্চায়েত প্রধান উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্য নাথকে এই বিষয়ে তদন্ত করার অনুরোধ জানিয়েছেন টুইট করে।

তিনি প্রধানমন্ত্রীর অফিসেও এই বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়ে চিঠি লিখেছেন। বাগপথেক মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক রাজ কিশোর ট্যান্ডন জানিয়েছেন, ওই চিকিৎসক এবং দুই সহকারিকে বিষয়টি নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তারা যথাযথ উত্তর না দিলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি এও জানিয়েছেন, কোন লিখিত অভিযোগ জানানো হয়নি এই বিষয়ে।

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন.