ভোটের কথা নয়, মানুষের কথা ভেবেই দুয়ারে সরকার : দোলা সেন

ভোটের কথা নয়, মানুষের কথা ভেবেই দুয়ারে সরকার : দোলা সেন
image source: aitc facebook page

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সমাজকল্যাণ প্রকল্প মানুষের কথা ভেবেই রূপায়িত হচ্ছে বলে দাবি করলেন তৃণমূল নেত্রী দোলা সেন। তিনি বলেন, “ভোটের সঙ্গে দুয়ারে সরকারের কোনও সম্পর্ক নেই।”

শনিবার তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক সম্মেলনে দোলা বলেন, “ইউনিসেফ ও বিশ্ব ব্যাঙ্ক রাজ্য সরকারের দুয়ারে সরকার প্রকল্পের প্রশংসা করেছে। ভোটের সঙ্গে ‘দুয়ারে সরকার’-এর কোনও সম্পর্ক নেই। বিরোধীরা বলছে, ভোট আসছে বলেই নাকি রাজ্য সরকার সাধারণ মানুষের জন্য দুয়ারে সরকার প্রকল্প ঘোষণা করেছে। কিন্তু তাদের উদ্দেশে বলে রাখি, এবার থেকে প্রতি বছর দু’বার করে দুয়ারে সরকার শিবির আয়োজন করা হবে। অর্থাত্‍ দু’বার করে মানুষ নিজেদের সমস্যার কথা সরকারকে জানাতে পারবেন এবং সহায়তা পাবেন। দুয়ারে সরকারের শিবির হবে দু’টি ধাপে”।

তিনি আরও বলেন, “অগাস্ট থেকে সেপ্টেম্বর মাসে প্রথম ধাপ। ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারি মাসে দ্বিতীয় ধাপ। মার্চ, এপ্রিল নাগাদ মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা থাকে। আবার বাঙালির শ্রেষ্ঠ উত্সব দুর্গাপুজো, কালিপুজো থাকে অক্টোবর, নভেম্বরে। তাই প্রথম ধাপ অগাস্টে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। দ্বিতীয় ধাপ হবে ডিসেম্বরে। ভোটের সঙ্গে দুয়ারে সরকারকে জড়াবেন না।”

এদিন দোলা সেন দাবি করেন, স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের ভালো সাড়া পাওয়া গিয়েছে। “রাজ্যের দুই-আড়াই কোটি নাম নথিভুক্ত হয়েছে। প্রতি তিন বছরে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড রিনিউ করতে পারবেন সাধারণ মানুষ। এখানেও বিরোধীরা প্রশ্ন করছে, এত লোকের পরিষেবা হবে কী করে! টাকা আসবে কোথা থেকে! আমরা জানাচ্ছি, মুখ্যমন্ত্রী যে বাজেট ঘোষণা করেছেন তাতে আগামী অর্থবর্ষে দেড় হাজার কোটি টাকা আমাদের সরকার স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ করেছে। স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের পরিষেবা রাজ্যের মানুষ রাজ্যের বাইরে চিকিত্‍সা করতে গেলেও পাবেন।”

আরো পড়ুনঃ   ব্রেকিং নিউজঃ রাজনীতিতে টলি নায়িকা! বিজেপিতে যোগ দিলেন পায়েল সরকার