‘এমন কিছু করব যাতে আমাকে নিয়ে গর্ব বোধ করেন’! NCB কর্তাকে কথা দিলেন আরিয়ান

'এমন কিছু করব যাতে আমাকে নিয়ে গর্ব বোধ করেন'! NCB কর্তাকে কথা দিলেন আরিয়ান
'এমন কিছু করব যাতে আমাকে নিয়ে গর্ব বোধ করেন'! NCB কর্তাকে কথা দিলেন আরিয়ান

গত ২ অক্টোবর মুম্বাই উপকূলে একটি ক্রুজ জাহাজে আয়োজিত পার্টিতে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো একটি অভিযান চালায়। এরপর গত ৩ অক্টোবর মাদক কাণ্ডে যোগ থাকার অভিযোগে গোয়াগামী ওই প্রমোদতরী থেকে বলিউড বাদশা শাহরুখ খান পুত্র আরিয়ান খান সহ আটজনকে আটক করেছিল নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর অফিসাররা। দীর্ঘক্ষণ জেরার পর, আরিয়ান খানকে গ্রেপ্তার করে NCB। এমনকি তার জামিনের সিদ্ধান্তও খারিজ হয়ে গিয়েছে। এই মুহূর্তে মুম্বাইয়ের আর্থার রোড জেলে বন্দি রয়েছেন আরিয়ান৷ আর সেখানেই শাহরুখ পুত্রের কাউন্সিলিং করালো এনসিবি।

এনসিবি সূত্রে জানা গিয়েছে, কাউন্সিলিং চলাকালীন এনসিবি-র মুম্বাই ইউনিটের ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়েকে আরিয়ান প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তিনি এমন কিছু কাজ করে দেখাবেন যাতে সবাই গর্বিত বোধ করে। এনসিবি কর্তাকে আরিয়ান জানান, ‘আমি এমন কিছু করে দেখাবো, যাতে আপনি একদিন আমাকে নিয়ে গর্ব বোধ করেন।’ সূত্রের খবর, কাউন্সেলিংয়ের সময় শাহরুখ পুত্র জানিয়েছেন, জেল থেকে মুক্তির পাওয়ার পরই তিনি গরিব এবং পিছিয়ে পড়া মানুষের সামাজিক এবং আর্থিক উন্নয়নের জন্য কাজ করবেন৷ এমনকি তিনি এও কথা দিয়েছেন, আগামীতে যেসব ভুল কাজের কারণে সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে আসতে হয়, তেমন কোনও কাজ তিনি আর করবেন না৷

উল্লেখ্য, ওই প্রমোদতরী থেকে গ্রেপ্তারির পর শাহরুখ পুত্রকে গত ৭ অক্টোবর ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয় মুম্বাইয়ের একটি বিশেষ আদালত। এরপর এদিন আটক আরিয়ান সহ মোট সাতজনের কাউন্সিলিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছিল৷ এনজিও-র কর্মীরা ছাড়াও এনসিবি আধিকারিকরা আরিয়ানের কাউন্সিলিং করেন৷ ইতিমধ্যেই এনসিবি-র তরফে জানানো হয়েছে, ওই প্রমোদতরী থেকে ১৩ গ্রাম কোকেন, ৫ গ্রাম এমডি, ২১ গ্রাম চরস, ২২টি এমডিএমএ পিল এবং ১ লক্ষ ৩৩ হাজার টাকা নগদ উদ্ধার করা হয়৷ যদিও আরিয়ানের কাছ থেকে কোনও মাদক পাওয়া যায়নি৷ আগামী ২০ অক্টোবর ফের আরিয়ানের জামিনের শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।